- Advertisement -

মিরাজ এসে বলে ‘আমাকে বল দেন, আমি খেলা বদলে দেবো’: তামিম

Must Try

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ঐতিহাসিক জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাঠে বাংলাদেশ কোনো ফরম্যাটে জয়ের দেখা পায়নি। এদিন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেঞ্চুরিয়নের মাঠে ৩৮ রানের বিশাল জয় তুলে নিয়েছে তামিম ইকবালের দল।

- Advertisement -

মেহেদি হাসান মিরাজ ও তাসকিন আহমেদের বোলিং তোপের মুখে ৩১৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২৭৬ রানে থেমে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এদিন প্রোটিয়াদের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন রাসি ফন ডার ডুসেন। তিনি ব্যক্তিগত ৮৬ রান করে তাসকিনের বোলে ক্যাচ আউট হন। টাইগার বোলার মেহেদি হাসান মিরাজ ৯ ওভার বল করে ৬১ রান খরচে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট তুলে নেন প্রোটিয়া বাহিনীর। এরপর তাসকিন আহমেদ ১০ ওভার বল করে ৩৬ রানের খরচায় তুলে নেন প্রোটিয়াদের গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট।

- Advertisement -

সর্বশেষ মাহমুদউল্লাহ’র বোলে এলবিডব্লু-এর ফাঁদে পড়েন কেশব মহারাজ। এতেই অল ৭ বল বাকী থাকতেই অলআউট হয়ে যায় প্রোটিয়ারা। এদিন টাইগার অধিনায়ক তামিম বোলারদের ব্যবহার করেছেন দারুণভাবে। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্রেকথ্রুও এনে দিয়েছেন তাসকিনরা। এর আগে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ লিটন দাস, সাকিব আল হাসান ও ইয়াসির আলীর তিন অর্ধশতকে ৩১৪ রান করে। শুরুতে তামিমের পর শেষদিকে অবদান রাখেন মিরাজ, মাহমুদউল্লাহ, আফিফরা। বাংলাদেশ গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১৪ রান।

- Advertisement -

সব মিলিয়ে দলীয় পারফরম্যান্সে দুর্দান্ত বাংলাদেশ পেল সেঞ্চুরিয়নে দুর্দান্ত জয়। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তামিম জানিয়েছেন, প্রথম ৪ ওভারে ৪০ রান (আসলে ৩৮) দেওয়ার পরেও আত্মবিশ্বাস ছিল মিরাজের। যে কারণে নিজ থেকেই বোলিং চেয়ে নেন ম্যাচ বদলে দেওয়ার জন্য এবং সত্যিই তা করে দেখান।

তামিমের ভাষ্য, ‘আমি মনে করি, সব দলে মিরাজের মতো ক্যারেক্টার প্রয়োজন আছে। কারণ প্রথম ৪ ওভারে ৪০ রান দেওয়ার পর সে আমার কাছে এসে বলে, আমাকে বল দিন, আমি খেলা বদলে দিবো। সে খুবই আত্মবিশ্বাসী ছিল। এটি অধিনায়কের কাজ সহজ করে দেয়, যখন আপনার খেলোয়াড়রা আত্মবিশ্বাসী থাকে।’

টাইগার অধিনায়ক জানান, তার চোখে মিরাজও আজকের ম্যাচের ম্যান অব দ্য ম্যাচ। তিনি বলেন, ‘আমি খুব খুশি যে আত্মবিশ্বাসটা মিরাজের মধ্যে আছে। এমন চাপের মধ্যে ডানহাতির সামনে ছোট বাউন্ডারিতে বোলিং করা, উইকেট এনে দেওয়া… আমার মতে, সেও আমার ম্যান অব দ্য ম্যাচ।’

- Advertisement -
- Advertisement -
- Advertisement -

Latest Post

- Advertisement -

You Like This

- Advertisement -