Tuesday, April 23, 2024

চিনা বাদামের বাম্পার ফলনে খুশি বরগুনার কৃষকরা

বর্তমান বাজারদরে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। চলতি বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বরগুনার আমতলীতে চিনা বাদামের বাম্পার ফলন হয়েছে। এর চাষে খরচ কম ও বেশি উৎপাদন হয় বলে কৃষকরা বাদাম চাষে ঝুঁকছেন। উপজেলা কৃষি অফিসের সূত্র মতে, চলতি মৌসুমে আমতলী উপজেলায় ৪৫০ হেক্টর জমিতে দেশি ও হাইব্রীড জাতের চিনা বাদাম চাষ হয়েছে।

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কৃষকরা অন্যান্য বছরের তুলনায় বাদামের বেশি ফলন পেয়েছেন। বর্তমানে কৃষকরা গাছ তুলে জমিতে বাদাম শুকাতে দিচ্ছেন। চিলা গ্রামের বাদাম চাষি মো. পাশা বলেন, আমি সহ এলাকার অনেকেই চিনা বাদামের চাষ করছেন। আমি এবছর ২৫ শতক জমিতে চিনা বাদামের চাষ করেছি। বীজ, সার, নিড়ানী, সেচ ও উত্তোলন মব মিলে ৮ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। জমিতে ফলনও বেশ ভাল হয়েছে। বর্তমানে প্রতি মণ কাঁচা বাদাম ২০০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আশা করছি লাভবান হতে পারবো।

উপজেলা কৃষি অফিসার সিএম রেজাউল করিম বলেন, চিনা বাদাম মূলত আমেরিকায় উৎপত্তি হয়। এটি মানব শরীরের জন্য ব্যাপক উপকারী এবং অর্থকরি ফসল। উঁচু জমিতে সারা বছরই বাদাম চাষ করা যায়। তবে বেলে দো-আঁশ ও এঁটেল-দো আঁশ মাটিতে এর ভালো ফলন হয়। এই উপজেলায় এই বাদামের চাষ করে কৃষকরা বাম্পার ফলন পেয়েছেন। ফলনের পাশাপাশি বর্তমানে ভালো বাজারদর পেয়ে চাষিরা খুশি। আশা করছি আগামীতে বাদাম চাষের পরিমান আরো বাড়বে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট