Monday, July 22, 2024

সারা রাত ঘুমাতে পারিনি, শুধু চুমুর বিষয়টা মাথায় ঘুরছিল : শিরিন শিলা

সারা রাত ঘুমাতে পারিনি, শুধু ওই চুমু দেওয়ার বিষয়টা মাথায় ঘুরছিল। ভোরে উঠেই ওই ছেলেকে খুঁজে বের করেছিলাম। আমার বিশ্বাসটাই ভেঙে দিয়েছে ওই ছেলে। কথাগুলো বলছিলেন অভিনেত্রী শিরিন শিলা।

সম্প্রতি শিরিন শিলা ও এক ছিন্নমূল কিশোরের ভাইরাল ভিডিও সম্পর্কে নেটপাড়া সরগরম। ভিডিওতে দেখা যায়, শুটিং করছিলেন অভিনেত্রী শিরিন শিলা। পুলিশের পোশাক পরে শুটিং করছিলেন। এ সময় এক ছিন্নমূল কিশোর এগিয়ে আসে, শিরিন শিলাকে জড়িয়ে ধরে। নেহাত শিশু ভেবেই অভিনেত্রী তাকে বুকে স্থান দেন, জড়িয়ে ধরেন।

ভিডিওতে আরো দেখা যায়, একসময় শিরিন শিলাকে ওই কিশোর বলে, ‘আমাকে নিয়ে যাও, আমি পড়াশোনা করব’ বলেই আবার জড়িয়ে ধরে। শেষদিকে কিশোরটি শিরিন শিলার গালে চুম্বন দেয়। অবশেষে শিরিন শিলা ওই ছেলের পরিচয় জেনেছেন।

নায়িকা শিরিন শীলা বলেন, প্রতিবন্ধীর অভিনয় করে আমার সহানুভূতি নিয়ে আমার সাথে চুমু দিয়ে যে কান্ড করেছে তা সত্যিই আমি অবাক! ছেলেটা আমাদের চেয়েও বড় অভিনেতা। আমরা অভিনেতা হলে কি হবে তার মতো বড় অভিনেতা নই। একজন প্রতারক।

ইউটিউবার ও সাংবাদিকদের প্রতি আহবান জানান বিষয়টি নিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে না করতে। তিনি ইউটিউবারদের উদ্দেশ্যে বলেন, কিছু টাকা কামানোর জন্য এমন সব কন্টেন্ট তৈরি করবেন না যাতে কষ্ট পাই। তিনি বিষয়টি খোলাসা করতেই লাইভে এসেছেন বলে জানান।

নায়িকা শিরিন শীলা বলেন, আমার অতি আবেগ, ভক্তের প্রতি ভালোবাসার কারণে আজ এমন একটি ঘটনা ঘটেছে। আমি ছেলেটিকে বিশ্বাস করে তাকে খাওয়ানোর টাকা দিয়েছি। সে যে ঘটনা ঘটিয়েছে আমি ভক্ত ভেবে মাথা ঠান্ডা করে পরিস্থিতি সামাল দিয়েছি।

ছেলেটি বলেছে তার মা নেই। সে আমার সাথে খেতে চাই। গাড়িতে ঘুরতে চায়। আমার সে অভিনয় দেখেছে। আমাকে স্কুলে ভর্তি করে দিতে বলেছে। পরে জানলাম তার মা আছে। সে ১০দিন আগে বিয়ে করেছে। রিকসা চালায়। সে প্রতিবন্ধী নয়। আসলে একজন প্রতারক। আমার সাথে প্রতারনা করে অভিনয় ছলে আমার সরলতার সুযোগ নিয়ে এক পর্যায়ে চুমু দিয়ে বসেছে। আসলেই ছেলেটা একজন লুচ্চা। তা না হলে এমনটি করে কি ভাবে। তারপরও আমি মাথা গরম করিনি।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার (২২ মে) ঢাকার ধামরাইয়ে ‘দ্য রাইটার’ নামের এক সিনেমার শুটিং চলছিল। শুটিং সেটেই একটি বিব্রতকর ঘটনা ঘটে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি নিজেই ভিডিওটি পোস্ট করেন। এরপর থেকেই তা ভাইরাল হয়ে যায় নেটদুনিয়ায়।

বুধবার সকালে শুটিং সেটে সেই ছেলেটিকে ধরে নিয়ে আসা হয়। তখন ছেলেটি শিরিন শিলার পা ধরে মাফ চাইছে। শুটিং ইউনিটের কেউ কেউ তাকে পুলিশে দেওয়ার কথাও বলছিলেন। শেষ পর্যন্ত তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। পুরো বিষয়টি ফের ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করেন শিরিন শীলা।

লাইভে এসে শিরিন শীলা বলেন, বিষয়টি পরিস্কার করতেই আমি ভিডিওটি প্রকাশ করি। ভাইরাল হবার জন্য নয়। ছেলেটি ভক্ত সেজে আমার সাথে সরলতার সুযোগে যা করেছে তা যেনো কেউ অন্য কোন অভিনেত্রীর সাথে করতে না পারে তা সর্তক করতে ভিডিও আপ করেছি।

এতে কেউ অন্য ভাবে নিবেন না। আর আমার এই সরলতার জন্য আমাকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আর যেসব ইউটিউবার ছেলেটির বাসায় গিয়ে ভিডিও করে এসে যা তা ভাবে প্রচার করছেন যা তা হেডিং দিয়ে তা বন্ধ করবেন।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট