Tuesday, May 21, 2024

মিয়া ভাইকে ‘বিদায় দিতে’ শুটিং ফেলে ছুটে এলেন শাকিব খান

ঢাকাই চলচ্চিত্রের শীর্ষ অভিনেতা শাকিব খান বলেন, কদিন পর পর যখন ফারুক ভাইয়ের খবর নিতাম, শুনতাম তিনি ভালো হয়ে গেছেন, সুস্থ হয়ে গেছেন। আমিও ভাবতাম কদিন পরেই বুঝি চলে আসবেন। গতকাল মঙ্গলবার (১৬ মে) দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের চ্যানেল আই কার্যালয়ে ফারুকের জানাজার নামাজ ও শোক বইয়ে শোকবার্তা লিপিবদ্ধ শেষে এ কথা বলেন শাকিব খান।

সুপারস্টার শাকিব খান আরও বলেন, ফারুক ভাই সংসদ সদস্য হওয়ার পরে আমি তাঁকে বলতাম আমার ভাবতেও ভাল লাগে যে আমি এলাকায় থাকি সে এলাকার এমপি হলেন আমার ভাই। ফারুক ভাইয়ের চলে যাওয়ায় চলচ্চিত্রের মানুষ বিশাল একজন গার্জিয়ানকে হারালো। অনেকদিন ধরেই ফারুক ভাই কষ্ট পাচ্ছিলেন। তাঁর পরিবারও সাফার করছিল। ভাবি বাচ্চারাও কষ্ট পাচ্ছিল। ফারুক ভাই কষ্ট পাচ্ছিলেন। আল্লাহ তাঁকে নিয়ে গেছেন। এখন আল্লাহতায়ালা তাঁকে শান্তিতে রাখুন। আল্লাপাক তাঁকে বেহেশতে নসিব করুন।

মঙ্গলবার সকালে সিঙ্গাপুর থেকে ফারুকের মরদেহ দেশে আসে। বিমানবন্দর থেকে প্রথমে নেওয়া হয় নায়কের রাজধানীর উত্তরার বাসায়। সেখানে কিছুক্ষণ রেখে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় শহীদ মিনারে। সেখানে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এফডিসিতে দ্বিতীয় দফায় জানাজা হয়। এফডিসি থেকে ফারুকের মরদেহ নেওয়া হয় চ্যানেল আই ভবনে। সেখানে আরেক দফা জানাজা শেষে কিংবদন্তী অভিনেতার মরদেহ নেওয়া হয় গুলশান আজাদ মসজিদে। সেখানে বাদ আসর আরেক দফা নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

সন্ধ্যা ৭টায় গ্রামের বাড়ি গাজীপুরের কালিগঞ্জে নেওয়া হবে মরদেহ। সেখানে দখিন সোম টিওরী জামে মসজিদে জানাজা শেষে পাঠান বাড়ি পারিবারিক কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে শায়িত হবেন নায়ক ফারুক।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট