Monday, July 22, 2024

মামলা করলে ভালো, তদন্ত হবে, আসল কালপ্রিট কে জাতি জানতে পারবে : রাজ

গত সোমবার (২৯ মে) দিবাগত রাতে চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে তিন অভিনেত্রী- তানজিন তিশা, নাজিফা তুষি ও সুনেরাহ বিনতে কামালের ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি-ভিডিও ফাঁসের ঘটনায় শোলগোড় পড়ে গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এ ঘটনায় নাজিফা তুষির কোনো বক্তব্য পাওয়া না গেলেও সোশ্যাল মিডিয়া ও সংবাদমাধ্যমে নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সুনেরাহ ও তানজিন তিশা।

সুনেরাহ নিজের ফেসবুক ও সংবাদমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘রাজ আমার বন্ধু। তার বিরুদ্ধে আমি মামলা করতে না চাইলেও আমার পরিবার থেকে মামলা করতে চায়। কারণ, এ ঘটনায় শুধু আমি নিজে নই, পরিবারও ভুক্তভোগী।’

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করার কারণে ঘটনার দুদিন পর তানজিন তিশা তার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বিষয়টি নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন। তিনিও বলছেন, দেশে ফিরেই আইনি পদক্ষেপ নিবেন।

এ প্রসঙ্গে শুক্রবার এক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন রাজ। তিনি বলেন, ‘প্রথম দিনই এ বিষয় নিয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা বলেছেন, তাদের মতো করে বিষয়টি নিয়ে কাজ করছেন। সত্য কথা কী, বিষয়টি নিয়ে আমি নিজেই বিব্রত। আমি চাই, সত্য বেরিয়ে আসুক। তা না হলে শুধু ভুক্তভোগীরা নয়, দেশের মানুষ আমাকেও ভুল বুঝছে।’

বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান না হলে ভুক্তভোগীরা আপনার বিরুদ্ধেই মামলা করার কথা বলছেন। এ ব্যাপারে কী বলবেন? এমন এক প্রশ্নের জবাবে রাজ বলেন, ‘তারা তো হেনস্তার স্বীকার, ভুক্তভোগী। মামলা করতেই পারে। তাছাড়া মামলা করলে ভালো হবে। মামলা হওয়ার পর তদন্ত হবে। তদন্তে আসল ঘটনা বের হয়ে আসবে। মামলা করলেই আসল কালপ্রিট কে, তা জাতি জানতে পারবে।’

এই চিত্রনায়ক আরও বলেন, ‘এ মামলায় আমাকে জেলে যাওয়া লাগলে আমি যাব। তবে আমি বলতে চাই, আমি কোনো অন্যায় করিনি। যেহেতু আমার আইডি থেকে এটি প্রকাশিত হয়েছে, আমার নামেই মামলা হবে, এটাই স্বাভাবিক। এ মামলাকে স্বাগত জানাই।

‘কারণ, মামলা হলে তদন্ত হবে। আমার ফোন সিজ করবে। কে আপ করেছে, কারা কারা জড়িত ছিল, কোন লোকেশন থেকে এটি প্রকাশ করা হয়েছে, সব বের হওয়া সম্ভব।’

এই পুরো ঘটনায় সুনেরাহ, তিশাদের মতো তিনি নিজেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে মনে করেন রাজ। তিনি বলেন, ‘আমার নিজেরও পরিবার আছে। কারণ, আমার ছোট বোনের বিয়ে ছিল এ মাসে। হঠাৎই এ ঘটনায় টক অব দ্য টাউন হলাম আমি। এ কারণে আমার বোনের বিয়ে পেছাতে হয়েছে। আমি বিষয়টি নিয়ে খুবই ক্লান্ত, হতাশ। আমি এখান থেকে বের হতে চাই। আমি কাজ নিয়ে থাকতে চাই, কাজের কথা বলতে চাই।’

তবে পুরো বিষয়টি নিয়ে ঘুরেফিরে চিত্রনায়িকা পরীমণির নামও এলে তার সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করতে রাজি নয় রাজ। তিনি বলেন, ‘সে আমার স্ত্রী, আমার বাচ্চার মা। তাকে নিয়ে আমি কোনো বাজে মন্তব্য করব না।’

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট