Tuesday, May 21, 2024

ব্যক্তিগত জীবনের কারণে পর্দায় বুবলীকে স্পর্শ করেননি শাকিব : মালেক আফসারী

সম্প্রতি অভিনেত্রী বুবলীর সঙ্গে আর স্ক্রিন শেয়ার করবেন না বলে জানান ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়ক শাকিব খান। এরপরেই শাকিবকে উদ্দেশ্য করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি দীর্ঘ পোস্ট দেন বুবলী। ওই স্ট্যাটাসে অভিনেতার কাছে নানা ধরনের প্রশ্ন রাখেন তিনি। ব্যক্তিগত জীবনের টানাপড়েন নিয়ে প্রায় সময়ই সমালোচনায় থাকেন অপু-শাকিব-বুবলী।

এ ব্যাপারে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া জানাননি ‘লিডার, আমি বাংলাদেশ’ খ্যাত এই অভিনেতা। তবে শাকিবের পাত্তা পাওয়া না গেলেও এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন দেশের জনপ্রিয় নির্মাতা মালেক আফসারী।

তিনি বলেন, বহুদিন পর বুবলীকে নিয়ে মুখ খুলেছেন শাকিব খান। সেই সঙ্গে অকপটে বলেন, বুবলী-অপু বিশ্বাস এখন আমার অতীত। মানে তাদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। এমনকি আর কখনই বুবলীর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন না তিনি। যদিও এটা আমরা ‘লিডার, আমি বাংলাদেশ’ এর ‘সুরমা সুরমা’ গান দেখেই সেটা বুঝতে পেরেছিলাম। এ ছাড়া উনি নিজেও বলেছেন।

পর্দায় আসলে সততা দেখাননি শাকিব। ওনার ব্যক্তিগত লাইফ ভর করেছিল, যে কারণে পর্দায় নায়িকাকে স্পর্শ করেননি তিনি। নায়িকাকে দূরে রেখেই গান শেষ করেছেন। এই ব্যাপারটা আমার কাছে একদমই অন্যরকম লেগেছে যে, একজন অভিনয়শিল্পী তার ব্যক্তিগত লাইফ পর্দায় নিয়ে এসেছেন। নায়িকা ওনার প্রেমিকা কিন্তু, তিনি তাকে স্পর্শ করবেন না। যেহেতু তাদের মধ্যে ব্যক্তিগত সম্পর্ক নেই।

নির্মাতা বলেন, এর মধ্যে বুবলী একটি স্ট্যাটাসে শাকিব খানকে ইঙ্গিত করে বলেছেন, আপনার মাথায় কী সমস্যা আছে। একেকবার একেক কথা বলেন। আপনি কী সজ্ঞানে কথা বলেন, না কী অজ্ঞানে। এতে তিনি আসলে বোঝাতে চেয়েছেন, গেল ঈদেই তাদের দেখা হয়েছে, গাড়িতে এক সঙ্গে লং ড্রাইভে গেছেন, গান শুনেছেন, আবার এক সঙ্গে খাবার খেয়েছেন তারা। এমনকি শাকিবকে খাইয়েও দিয়েছেন তিনি। তারপর হঠাৎ করে কেন এসব কথা আসলো?

তিনি বলেন, আপনাদের পারিবারিক বিষয়গুলো ধামাচাপা দেন। বাইরের দেশে কি তারকাদের নিয়ে কোনো ঘটনা ঘটছে না। সেখানে সাংবাদিকরা যতটুকু বের করে আনতে পারেন ততটুকুই জানা যায়। আর এখানে সাংবাদিকদেরকে কিছু খুঁজতে হয় না, আপনারা নিজেরাই সামনে এনে দেন কথা বলার জন্য। যে কারণে আমরা কথা বলার সুযোগ পাই। এটা কি ভালো দেখায়, একদমই না। বিভিন্ন ধরনের আলোচনা হয় এসব নিয়ে। আমরা সুপার স্টারকে নিয়ে গর্ব করতে চাই, আলোচনা-সমালোচনা নয়।

মালেক আফসারী বলেন, এই মুহূর্তে আপনাদের ব্যক্তিগত জীবনের বিষয়গুলো অনেকটাই ধামাচাপা পড়ে গিয়েছিল। মানুষ এখন কথা বলছিল ‘প্রিয়তমা’ নিয়ে। এখন এই সিনেমার শুটিং আপনার। তাই আপনার কাছে আমার প্রশ্ন, এই সময় এসে আবার বুবলীর সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করবেন না, ও আমার অতীত, আমার জীবনে নেই এই ঘটনাগুলো সামনে আনলেন কেন?

চুপচাপ থাকতেন। আপনাদের মধ্যে ভেতরে ভেতরে যা হওয়ার হতো। স্ট্যাটাসে বুবলী আরও বলেছেন, এই কথাগুলো থেকে যাবে। বাচ্চারা বড় হলে এগুলো দেখবে এবং তাদের ওপরে এর বিরুপ প্রভাব পরবে। তিনি ঠিকই বলেছেন।

সবশেষে নির্মাতা বলেন, আপনাদের সন্তানরা বড় হয়ে এগুলো পড়বে। তখন তাদের মানসিকভাবে প্রবলেম হবে। এমনিতেই ব্রোকেন ফ্যামিলির বাচ্চাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে একটু চিন্তায় থাকতে হয়। তাই তাদের কথা ভেবে আর না, প্লিজ একদম চুপ হয়ে যান। আর যাই করেন পারিবারিক বিষয়গুলো সামনে আনার দরকার নাই। শুধু কাজ নিয়ে থাকতে চাই আমরা, কর্মই হচ্ছে আমাদের ধর্ম। আমরা আমাদের কর্ম নিয়েই থাকি এবং ভালো কাজ করি।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট