Saturday, July 20, 2024

বিদিশাকে নিজের মধ্যে ধারণ করেছি : সাবিলা নূর

সাবিলা নূর। তারকা অভিনেত্রী ও মডেল। সম্প্রতি তাঁর অভিনীত ‘বিদিশা’ নাটকটি দর্শকের মাঝে সাড়া ফেলেছে। এ নাটক, বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হয় তাঁর সঙ্গে–

গ্ল্যামার চরিত্র থেকে সরে এসে ‘বিদিশা’ নাটকে অভিনয় করলেন। হঠাৎ এমন চরিত্র বেছে নেওয়ার কারণ?

হঠাৎ নয়, আমি অনেক দিন ধরেই চাইছি এমন কিছু চরিত্র পর্দায় তুলে ধরতে, যা দর্শকমনে আঁচড় কাটবে। তাছাড়া দর্শকের কাছে আমার ইমেজটা শুধু গ্ল্যামার নায়িকা হয়ে থাকুক– এটা চাই না। বরং চরিত্র যেমনই হোক, অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তা দর্শকের কাছে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে চাই। সেই ভাবনা থেকেই মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের ‘বিদিশা’ নাটকে অভিনয় করা।

বিদিশা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নিজেকে কীভাবে তৈরি করেছিলেন?

বিদিশা দেখতে কালো বলে নানাজনের নানারকম কটু কথা শুনতে হয়। পরিবারের সদস্যরাও চায়, কোনো রকমে তার একটি বিয়ে দিয়ে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে। কিন্তু বিদিশা চায়, সবকিছুর ঊর্ধ্বে গিয়ে নিজেকে প্রমাণ করতে। এই যে তার চাওয়া, নিজের মতো করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা, লোকনিন্দা সহ্য করে সমাজে টিকে থাকা– তা নিয়ে যে মানসিক অবস্থা তৈরি হয়েছে, সেটাই নিজের মধ্যে ধারণ করার চেষ্টা করেছি। এককথায়, বিদিশাকে নিজের মধ্যে ধারণ করেছি, মিশে গেছি তার জীবনের গল্পে। নিজেকে ভিন্নরূপে পর্দায় তুলে ধরার আগে পরামর্শ করেছি নির্মাতা ও কলাকুশলীদের সঙ্গে। যাতে করে কাজটি দর্শকের কাছে বিশ্বাসযোগ্য করে তোলা যায়।

গল্প, চরিত্র যাচাই-বাছাই করে অভিনয় করতে চান বলেই কি পর্দায় আজকাল কম দেখা যাচ্ছে?

অনেকটা তাই। দেখুন, জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে অনেক কাজ করা যায়। কিন্তু দর্শক তা মনে রাখবে কিনা– সেটাও ভাবতে হবে। অভিনয় তো শুধু পেশা নয়, এটা নেশা। এর প্রতি আছে অগাধ ভালোবাসা। অভিনয়ের মধ্য দিয়ে পরিণত শিল্পী হয়ে ওঠার স্বপ্ন। হোক না কাজের সংখ্যা কম, তবু সেটাই করব, যা অনেক দিন দর্শকমনে বেঁচে থাকবে। তাই একের পর এক কাজ না করে, সে রকম কাজই বেছে নিচ্ছি, যা দর্শকের কাছে নতুন ও অভিনব মনে হবে। সে ধরনের কাজ প্রতিদিন হচ্ছে না বলেই পর্দায় একটু কম দেখা যাচ্ছে।

অভিনয়ে যে বিষয়গুলো প্রাধান্য দেন, তা মিলে গেলে সিনেমাতেও কি দেখা যাবে?

ভিন্ন স্বাদের গল্প, নতুন চরিত্র আর অভিনয়ে নিজেকে ভেঙে নতুন কিছু করে দেখানোর সুযোগ থাকলে সিনেমাতেও অভিনয় করব। এখন দেখার অপেক্ষা, প্রত্যাশামাফিক কাজের সুযোগ কবে আসে।

সূত্র: সমকাল।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট