Friday, April 19, 2024

পটল চাষে লাভবান বাঘার চাষিরা!

চলতি বছর আবহাওয়া ভাল থাকায় কৃষকরা পটলের ভাল ফলন পেয়েছে। ফলনের পাশাপাশি পটলের বাজারদর ভাল থাকায় বিক্রি করে লাভবান হচ্ছেন চরাঞ্চলের অধিকাংশ কৃষক। রাজশাহীতে পদ্মার চরাঞ্চলে পটল চাষে কৃষকদের মুখে হাসি ফুটেছে।

রাজশাহীর বাঘা উপজেলা তিনটি ইউনিয়নের চাষিরাই পটলের চাষ করছেন। এখানকার মাটি ও আবহাওয়া পটল চাষের উপযোগী হওয়ায় চাষিরা এর চাষ করে ভাল ফলন পাচ্ছেন। বর্তমানে বিস্তৃীর্ন মাঠজুড়ে অসংখ্য পটল ক্ষেত। অনেকে বাশের মাচা তৈরী করে আবার অনেকে জমিতে খড় বিছিয়ে পটলের চাষ করছেন। জমি থেকে পটল সংগ্রহ করে তা বাজারজাত করছেন। কৃষকরা জমি থেকে পটল তোলায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।

চাষি আবু বকর বলেন, আমি ৪ বিঘা জমিতে পটলের চাষ করেছি। এবছর আবহাওয়া ভাল থাকায় বেশি ফলন পেয়েছি। বাজারে পটলের দর ভাল। পটল বিক্রি করে ভালো টাকা আয় করতে পারবো। কৃষক ফজলু দেওয়ান বললেন, এবছর আমি ২ বিঘা জমিতে পটলের চাষ করেছি। এতে প্রতি সপ্তাহে ১০ মণ করে পটল সংগ্রহ করতে পারছি। বাজারো প্রতিমণ পটল ৯০০ টাকা দরে বিক্রি করতে পারছি।

উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতান বলেন, পটল চাষ খুব লাভজনক। পুরো দেশে পটলের চাষ হয় না। শুধু মাত্র রংপুর, রাজশাহী, বগুড়া, পাবনা, কুষ্টিয়া ও যশোর জেলায় ব্যাপকভাবে পটলের চাষ করা হয়। তারমধ্যে রাজশাহীর বাঘা উপজেলাতেও পটলের চাষ হয়ে থাকে। আমরা কৃষকদের সার্বিক সহযোগিতা করছি। চলতি বলছ এই উপজেলার ৩ টি ইউনিয়নে প্রায় ৬ হাজার হেক্টর জমিতে পটলের চাষ হচ্ছে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট