Saturday, February 24, 2024

দেশের ৪১ হলে ‘পাঠান’, প্রতিদিন চলবে ২০৬ শো

আজ শুক্রবার (১২ মে) দেশের ৪১টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন ‘পাঠান’র আমদানিকারক অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের কর্ণধার অনন্য মামুন। শত জল্পনা-কল্পনা ও পক্ষ-বিপক্ষের আলোচনার ঝড় পেরিয়ে অবশেষে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলো হিন্দি সিনেমা ‘পাঠান’।

তিনি জানালেন, দেশের সব মাল্টিপ্লেক্স ও উন্নতমানের কিছু সিঙ্গেল স্ক্রিন মিলিয়ে মোট ৪১টি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি দেওয়া হয়েছে। এগুলোতে প্রতিদিন ‘পাঠান’র ২০৬টি শো প্রদর্শিত হবে।

সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত পাঠানে শাহরুখ খানের সঙ্গে রয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন ও জন আব্রাহাম। সিনেমাটি ইতোমধ্যে বলিউডে সুপারহিট তকমা পেয়েছে, ভারতের বাইরেও দারুণ ব্যবসা করেছে সিনেমাটি। বাংলাদেশে আমদানিকারণক প্রতিষ্ঠানের আশা ছবিটি বাংলাদেশেও তুমুল ব্যবসা করবে।

এদিকে ‘পাঠান’ মুক্তির ঠিক আগমহুর্তে বসুন্ধরা শপিংমলের সামনে শাহরুখ খানের ’পাঠান’’ দেশে বরণ করে নিতে একদল ভক্তকে কেক কেটে শুভসূচনা করতে দেখা গেল।

রোজার ঈদের পরপরই ৫ মে দেশের প্রেক্ষাগৃহে ‘পাঠান’মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা ছিল আমদানিকারক অনন্য মামুনের। ঈদে মুক্তি পাওয়া দেশীয় সিনেমার ব্যবসা তাতে ক্ষতিগ্রস্ত হবে উল্লেখ পাঠান মুক্তি পেছানোর দাবি তুলেন পরিচালক, প্রযোজক, অভিনয়শিল্পীরা। সেই পরিপ্রেক্ষিতে ১২ মে ‘পাঠান’ মুক্তির তারিখ ঠিক হয়। এর মধ্যে সেন্সর বোর্ড থেকে মেলে ছাড়পত্র। অবশেষ আজ দেশের হলে মুক্তি।

তিনি আরও বলেন, বক্স অফিস কার্যকর না থাকায় প্রেক্ষাগৃহে বেশি টিকেট বিক্রি হলেও সঠিক তথ্য পাওয়া যায় না। ফলে সিনেমার প্রযোজকেরা ক্ষতিগ্রস্ত হন। বক্স অফিস চালু থাকলে, ই-টিকেটিং এর মধ্য দিয়ে টিকেট বিক্রির তথ্য আড়াল করার সুযোগ থাকে না। আমরা সব হলে ই-টিকেটিং ব্যবস্থা চালু করার ব্যবস্থা নিয়েছি।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট