Friday, April 19, 2024

ছেলেকে সৎ প্রমাণ করতেই ভোটে এসেছি : জায়েদা খাতুন

ছেলের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা চালানো হয়েছে, তাকে সৎ প্রমাণেই নির্বাচনে এসেছিলেন বলে জানিয়েছেন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত গাজীপুরের মেয়র জায়েদা খাতুন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত (২৬ মে) রাত সাড়ে ৩টার দিকে নিজ বাড়িতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় নির্বাচনের জয় তিনি গাজীপুরবাসী ও প্রধানমন্ত্রীকে উৎসর্গ করেন।

তিনি বলেন, ‘গাজীপুরবাসীর কাছে অনেক ঋণ। সবার ঋণ শোধ করতে চাই কাজ করে। ছেলেকে পাশে নিয়ে কাজ করবো। আমার ছেলের বাকি কাজ শেষ করবো।’

ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মিথ্যা রাজনীতির শিকার হয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ছেলেকে সৎ প্রমাণেই ভোটে এসেছি। সবার ভালোবাসায় আমার ছেলে যে ঠিক ছিল তা প্রমাণ হয়েছে।’

তবে গাজীপুর সিটিকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে সবার সহযোগিতা চান জায়েদা খাতুন। তিনি বলেন, আমি সবাইকে পাশে চাই। আজমত উল্লাকেও শহরের উন্নয়নে পাশে চাই। এ সময় তিনি উল্লেখ করেন, সবার মতামতের ভিত্তিতেই কাজ করবো। ভোট সুষ্ঠু হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান জায়েদা খাতুন। আগামী দিনে তার সহযোগিতাও চান তিনি।

এ সময় তার ছেলে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা ও নির্দেশনায় কাজ করবো। বড় ভাই আজমত উল্লা খানসহ রাজনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত সবার পরামর্শে গাজীপুরকে গড়ে তুলবো। মায়ের কর্মচারী হিসেবে সব সময় তার পাশে থাকবো।’

মিথ্যার প্রতিবাদের মা জায়েদা খাতুন নির্বাচন করেছেন উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘মা ও সন্তান মিলে বিশেষ করে অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে কাজ করতে চাই।

এ সময় গাজীপুরের প্রতিষ্ঠিত মানুষদের দুর্দিনে পাশে থাকেননি জানিয়ে জাহাঙ্গীর আরও বলেন, ‘বড় বড় মানুষ পাশে ছিলেন না। চরম অসহায় সময়ে এ শহরের খেটে খাওয়া ও সাধারণ মানুষ আমাদের পাশে ছিলেন। আমরাও নিজেদের সর্বোচ্চ দিয়ে তাদের পাশে থাকবো। সুন্দর একটা শহর গড়তে কাজ করবো।’

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট