Tuesday, May 21, 2024

‘খুফিয়া’ সিনেমায় তুমুল সমালোচিত বাঁধন!

বাংলাদেশের অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন বলিউড সিনেমা ‘খুফিয়ায়’ অভিনয় করেছেন। এতে তার অভিনয় প্রশংসা কুড়ালেও চরিত্রটি নিয়ে নেটিজেনদের সমালোচনার ঝড়ে পড়েছেন অভিনেত্রী। গত ৫ অক্টোবর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে অ্যাকশন স্পাই থ্রিলার ঘরানার সিনেমা ‘খুফিয়া’। প্রথমবারের মতো বলিউড সিনেমায় বাংলাদেশি অভিনেত্রী অভিনয় করছেন বলে বিদেশি এ সিনেমাটি নিয়ে বাংলাদেশের দর্শকদেরও আগ্রহের কমতি ছিল না।

গত সোমবার ( ১৮ সেপ্টেম্বর) নেটফ্লিক্স ইন্ডিয়া ইউটিউব চ্যানেলে এ সিনেমার ট্রেলার প্রকাশিত হলে বলিউড সিনেমায় বাঁধনের উপস্থিতি সকলের নজর কাড়ে। কিন্তু ট্রেলারে নজর কাড়লেও সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার পর অভিনেত্রী থেকে যেন মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন বাংলাদেশি দর্শকরা! কী ছিল ওই সিনেমায়? ওই সিনেমায় বাঁধনের উপস্থিতি খুব কম হলেও সিনেমায় যতক্ষণ তাকে দেখা গেছে, ততক্ষণই পর্দায় বাংলাদেশকে নেতিবাচকভাবে তুলে ধরেছেন তিনি। সিনেমায় বাঁধনের চরিত্রের নাম হেনা ওরফে অক্টোপাস। যে কিনা দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর প্রতি ক্ষিপ্ত থাকেন।

এ সিনেমায় বাংলাদেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে নেতিবাচক হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। এ পদে দায়িত্ব পালন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটি দেশের কেউই মেনে নিতে পারেননি। সিনেমায় বাঁধনের অভিনয় করা চরিত্রটি এতটাই আপত্তিকর যে, পর্দায় তাকে দেখা গেছে একজন সমকামী হিসেবে। বিদেশের মাটিতে তাই বাংলাদেশের ভাবমূর্তিও নষ্ট করছে ‘খুফিয়া’ সিনেমাটি। একজন বাংলাদেশি অভিনেত্রী হয়ে কীভাবে বাঁধন তা করতে পারলেন, তাই এখন প্রশ্ন ভক্তদের!

দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে এবং নিজের দেশকে বাজেভাবে উপস্থাপন করা হবে – এজন্য এ সিনেমার কাজ প্রথমে না করে দেন মেহজাবীন চৌধুরী। মেহজাবীন সিনেমায় অভিনয় না করতে চাইলে সিনেমার পরিচালক বিদ্যা সিনহা মিমকে এ সিনেমায় কাজ করার প্রস্তাব দেন। ওই একই কারণে বিদ্যা সিনহা মিমও সিনেমাটিতে অভিনয় করতে অস্বীকৃতি জানান। এরপর পরিচালক বিশাল ভরদ্বাজ বাঁধনকে এ সিনেমায় কাজ করার প্রস্তাব দেন। নিভে যাওয়া ক্যারিয়ারের কথা ভেবে দেশপ্রেম ভুলে বলিউড সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাবটি লুফে দেন এ অভিনেত্রী।

থ্রিলার ঘরানার সিনেমাটিতে বাঁধন ছাড়াও অভিনয় করছেন টাবু, আলী ফজল, আশিস বিদ্যার্থী ও ওয়ামিকা গাব্বি। নেটফ্লিক্সের এ সিনেমাটি নির্মিতি হয়েছে অমর ভূষণের বই ‘এসকেপ টু নো হোয়ার’ অবলম্বনে। যেখানে গল্পের প্রয়োজনে একজন বাংলাদেশের অভিনেত্রীর প্রয়োজন ছিল পরিচালকের।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট