Saturday, February 24, 2024

ক্ষোভে সার্টিফিকেট পোড়ানো সেই মুক্তার চাকরি হলো আইসিটি মন্ত্রণালয়ে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইডেন কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী মুক্তা সুলতানার সার্টিফিকেট পোড়ানোর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ডেকে পাঠান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। চাকরির বয়স শেষ হওয়ায় ফেসবুকে এক লাইভে এসে নিজের সব একাডেমিক সার্টিফিকেট পুড়িয়ে ফেলা সেই মুক্তার চাকরি হলো আইসিটি মন্ত্রণালয়ে।

সেশনজট ও করোনার কারণে একদিকে চাকরির আবেদনের সময় শেষ। অন্যদিকে পরিবারের খরচ বহন করতে খেতে হচ্ছে হিমশিম। আবার চাকরির বয়স বাড়ানোর আন্দোলন করেও মিলছে না কোনো সুখবর। তাই ক্ষোভে নিজের সব সার্টিফিকেট পুড়িয়ে ফেলেন মুক্তা। কষ্ট আর ক্ষোভের এ কথা শুনে মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্পে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক তার চাকরির ব্যবস্থা করে দেন।

আজ সোমবার (২৯ মে) আগারগাঁওয়ে মুক্তা সুলতানার হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেন তিনি। এসময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপাতত ছয়মাসের জন্য মুক্তা সুলতানার হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়েছে। স্থায়ীর বিষয় বলব না তবে বিশ্বাস করি সে ছয় মাসের আগেই নিজের একটা জায়গা তৈরি করে ফেলতে পারবেন।

এদিকে, চাকরি পেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলককে ধন্যবাদ জানান কিশোরগঞ্জের মেয়ে মুক্তা।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার ইডেন কলেজের সামনে এসে ফেসবুকে লাইভে থেকে নিজের সব একাডেমিক সার্টিফিকেট পুড়িয়ে ফেলেন ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী মুক্তা সুলতানা। চাকরির বয়স শেষ হওয়ায় এ শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট সরকারি-বেসরকারি কোনো চাকরিতে কাজে লাগছে না দাবি করে পুড়িয়ে দেন তিনি।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট