Sunday, July 21, 2024

কবুতর পালনে স্বপ্ন দেখছেন লালমনিরহাটের আব্দুর রহিম

স্বপ্ন পূরণে ইতোমধ্যে স্বল্প পরিসরে গড়ে তুলেছেন দেশী-বিদেশী কবুতরের খামার। এলাকার অনেকেই এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানানোর পাশাপাশি আব্দুর রহিমকে সাহস জুগিয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও তার দেখাদেখি এলাকার এখম অনেকেই কবুতর পালনে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। কবুতর পালনে সফলতার পাশাপাশি স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার দলগ্রাম ইউনিয়ন এর অন্তর্গত কালভৈরব ময়নার বাজার এলাকার আব্দুর রহিম।

শখের বসে কবুতর পালন শুরু করেছেন। পরবর্তীতে কবুতর পালনের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। বর্তমানে তার খামারে বোম্বাই, শিরাজী, গিরিবাজ, বাগদাদি, লক্খা চিলা ইত্যাদি জাতের কবুতর আছে। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে খাদ্যের দাম বেশি হওয়ায় কবুতর পালনে বিপাকে পড়েছেন আব্দুর রহিম। কবুতরের ডিম ও বাচ্চা বিক্রির মাধ্যমে তার সংসার চলছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

আব্দুর রহিম বলেন, কবুতরের প্রতি আমার অন্যরকম ভালোবাসা জন্মেছে। কবুতর পালন করে একদিকে আমার সময় কাটে, অপর দিকে কিছু আয়ও হয়। আমার খামারে যেসব কবুতর রয়েছে তার সবগুলোই দর্শনীয় এবং উচ্চমূল্যের। র্তমান বাজারে কবুতরের খাদ্যের মধ্যে ভুট্টা, গম, সরিষা, বুট কালাই, ফিড ইত্যাদির দাম অনেক বেশি। তবে উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস থেকে প্রশিক্ষণ ও সহায়তা পেলে আমার অনেক সুবিধা হত বলেও তিনি জানান। যার কারণে কবুতর পালনে লোকসান গুনতে হচ্ছে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ স্বপন চন্দ্র সরকার বলেন, এই উপজেলায় তেমন কোন কবুতর খামারি নেই। তবে অনেকেই শখের বশে কবুতর পালন করে। কবুতর পালন বিষয়ক নতুন কোণ প্রকল্প চালু হলে কবুতর খামারিদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করব বলেও তিনি আশ্বস্ত করেন। তবে গবাদিপ্রাণির পাশাপাশি অন্যান্য পশুপাখির চিকিৎসা সহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট