Saturday, February 24, 2024

আমার কাছে গল্পটা জরুরি : ফারিণ

গতকাল চরকিতে মুক্তি পেয়েছে তাসনিয়া ফারিণ অভিনীত ‘পুনর্মিলনে’। এ ছাড়াও ফারিণ কলকাতার একটি সিনেমাতেও অভিনয় করতে যাচ্ছেন।

‘পুনর্মিলনে’ ওয়েব ফিল্ম মুক্তি পেল। যদি জানতে চাই কনটেন্টটি দর্শক কেন দেখবেন?

স্কুল-কলেজের বন্ধুত্বের গল্প নিয়ে অনেক সিনেমা, নাটক ও সিরিজ দেখা যায়। কাজিনদের বন্ধুত্বের গল্প নিয়ে খুব একটা কনটেন্ট তৈরি হয় না। ‘পুনর্মিলনে’ কাজিনদের বন্ধুত্বের গল্প নিয়েই। এতে কাজিনদের বন্ধুত্বের মধ্যে ছড়িয়ে থাকা আনন্দ, অভিমান, টানাপোড়েন, সংশয় আর দ্বন্দ্বকে তুলে আনা হয়েছে। ফিল্মটি দেখার সময় দর্শকদের অনেকেই পেছনে ফিরে যাবেন, কাজিনদের মধ্যকার বন্ধনের প্রতি গুরুত্ব দেবেন। মোট কথা, ছবিটি দর্শকদের স্মৃতিকাতর করবে।

আপনিও কি স্মৃতিকাতর হয়েছিলেন?

গল্পটা বেশ ইমোশনাল, আনন্দের, উচ্ছ্বাসের ও সম্পর্কের। যে কোনো মানুষই স্মৃতিকাতর হবে, আনন্দিত হবে। আমিও হয়েছি। আমার কাজিনরাও অনেকে বিদেশে থাকে। কত কত বছর পর তাদের সঙ্গে দেখা হয়। আবার দেখা হয়ওনা। গল্পটি নিজের সঙ্গেও রিলেট করতে পেরেছিলাম। আর মিজানুর রহমান আরিয়ান গল্পটি দারুণভাবে স্ক্রিনে দেখাতেও পেরেছেন। মজার বিষয় হচ্ছে, ‘পুনর্মিলনে’র গল্প পড়ার পর দ্বিতীয়বার ভাবিনি। নিজেকে গল্পের অংশ বলে মনে হয়েছে।

আরিয়ানের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা থাকলেও সিয়ামের সঙ্গে প্রথম। তিক্ত না আনন্দের ছিল?

নিঃসন্দেহে আনন্দের। আরিয়ান ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করেছি প্রচুর। তিনি পারফেকশনিস্ট একজন পরিচালক। তাঁর মনমতো না হওয়া পর্যন্ত প্রোডাকশনের কোনো বিষয়ে ছাড় দেন না। আরিয়ান ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করলে প্রতিবারই নতুন ভালো অভিজ্ঞতা হয়, নতুন কিছু শেখা যায়। সিয়াম ভাইয়ের সঙ্গে এই প্রথম কাজ করলাম। মজার বিষয় হচ্ছে, এর আগে সিয়াম ভাইয়ের সঙ্গে আমার কখনও কথাও হয়নি। হয়তো কোনো অনুষ্ঠানে দেখা হয়েছে কিন্তু কথা বলা হয়ে উঠেনি। সেই সিয়াম ভাইয়ের সঙ্গে কাজ। তিনি কাজের বিষয়ে বেশ সিরিয়াস পারসন। সব মিলিয়ে দারুণ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়েই গিয়েছি।

আপনি আমির খানের নায়িকা হচ্ছেন– ক’দিন আগে এমন খবর চোখে পড়ে। আপনারও কি পড়েছিল?

হ্যাঁ, আমিও দেখেছি। এমন খবর আমার জন্যও বেশ বিব্রতকর। পাঠকের খবরের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে এমন শিরোনাম মোটেই কাম্য নয়। আমি আমির খানের প্রযোজনা কিংবা বলিউডের কোনো সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হইনি। এমন কিছু হলে আমিই বেশি আনন্দিত হতাম। আমিই সবাইকে জানাতাম।

কলকাতার ছবিটিতে তো চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন?

হ্যাঁ, ওটাতেই হয়েছি। খবরের ভুল শিরোনামের যোগসূত্রটা ওখান থেকেই। ছবির নাম ‘পাত্রী চাই’। কলকাতার পরিচালক বিপ্লব গোস্বামী পরিচালনা করবেন এটি। এই পরিচালকের চিত্রনাট্যে বলিউডে নির্মিত ‘লাপাতা লেডিস’ সিনেমা। যেটি প্রযোজনা করেছেন আমির খান। ওই সিনেমা পরিচালনা করেন আমিরের সাবেক স্ত্রী কিরণ রাও। সেখান থেকেই ভুল শিরোনামের সূত্রপাত হয়তো। ‘পাত্রী চাই’ ছবিতে ঠাট্টার আড়ালে সমাজের বিভিন্ন অসংগতির চিত্র দেখানো হবে। বলতে পারেন সোশ্যাল স্যাটায়ার সিনেমা। এতে আমার সঙ্গে রয়েছেন অর্জুন চক্রবর্তী।

ওটিটির কনটেন্টে নিয়মিত দেখা যাচ্ছে আপনাকে। এ মাধ্যমে গল্প নির্বাচনে কোন দিকটা মাথায় রাখছেন?

মাথায় একটি বিষয়ই থাকছে, সে হচ্ছে গল্প ভালো হতে হবে। তা হতে পারে অ্যাকশন, থ্রিলার, রোমান্টিক কিংবা কমেডি। মোটকথা আমার কাছে গল্পটা জরুরি।

সম্প্রতি জীবনের নতুন এক অধ্যায়ে পা রাখলেন। বিয়ের পরের অভিজ্ঞতা কেমন?

বিয়ের জন্য কয়েক দিন মাত্র কাজের বাইরে ছিলাম। এরপর তো আগের মতোই কাজ করা। ওদিকে রেজওয়ানও কাজের জন্য দেশের বাইরে। সব মিলিয়ে দু’জন কাজের মধ্যেই আছি।

সূত্র: সমকাল।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট