Wednesday, April 17, 2024

আপনারা কোনো গু’জবে বিভ্রান্ত হবেন না : শাবনূর

বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে সপরিবারে বসবাস করছেন নব্বইয়ের দশকে বাংলা চলচ্চিত্রের সাড়াজাগানো নায়িকা শাবনূর। তবে নাড়ির টানে প্রতিবছরই দেশে আসেন। সেই ধারাবাহিকতায় গেল বছর নিজের জন্মদিনে দেশে আসেন তিনি। আর দেশে এসেই নতুন সিনেমায় কাজ করার ঘোষণা দেন এই নায়িকা।

তরুণ নির্মাতা আরাফাত হোসাইনের ‘রঙ্গনা’ সিনেমার মাধ্যমে ফের ক্যামেরার সামনে আসতে যাচ্ছেন নন্দিত এই নায়িকা। পাশাপাশি একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ও নির্মাতার ব্যানারে ‘এখনো ভালোবাসি’ নামে আরও একটি সিনেমার ঘোষণা দেন এই নায়িকা। গেল ১০ ফেব্রুয়ারি এম এস ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিতব্য সিনেমাটির মহরত অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকা ক্লাবে। যেখানে উপস্থিত ছিলেন শাবনূর নিজেও।

শাবনূর সে সময় জানান, এখানেই থেমে থাকবো না। পরপর কাজ করব। চেষ্টা করব একটির পর আরও কাজ করার। স্বাভাবিকভাবে শাবনূর ভক্তরাও ধরে নিয়েছিলেন শিগগিরই শুটিংয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন এই নায়িকা। কিন্তু তাদের জন্য যেন একটা দুঃসংবাদই অপেক্ষা করছিল। হঠাৎই দেশ ছেড়েছেন শাবনূর।

এদিকে সিনেমার মহরতের পরপরই দেশ ছেড়েছেন শাবনূর। কাউকে বিষয়টি সেভাবে জানিয়েও যাননি। অনেকটা গোপনেই দেশ ছেড়েছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই নায়িকা। কবে ফিরবেন সেটাও জাননে না কেউ। বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে মুখ খুলেছেন এই নায়িকা।

রোবাবার (৩ মার্চ) তার ফেসবুক ফেইজে একটি স্ট্যাটাস দেন শাবনূর। যেখানে তিনি লিখেন, গত ১/০৩/২০২৪ তারিখ থেকে আমি লক্ষ্য করছি, আমার অস্ট্রেলিয়া ফিরে আসাকে কেন্দ্র করে মিডিয়াতে বিভ্রান্তিকর খবর, দেখেশুনে মনে হচ্ছে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভুয়া গুজব ছড়ানো হচ্ছে। কিছু ভূঁইফোড় অনলাইন ও সোশ্যাল মিডিয়া বলবার চেষ্টা করছে আমি নাকি সিনেমার ঘোষণা দিয়ে গোপনে দেশ ছেড়েছি, কবে ফিরব সেটা জানেন না কেউ, চিন্তায় পড়েছেন সিনেমাগুলোর পরিচালকরা। তারা রং-ঢং মাখিয়ে আরোও কত কিছু রটাচ্ছে! আশ্চর্যের ব্যাপার, এদের দেখাদেখি মূলধারার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াও মনগড়া খবর প্রকাশ করে ভাইরাল হবার প্রতিযোগিতায় যোগ দিয়েছে। আমার সাথে কথা না বলেই যে যার মতো করে মনগড়া সংবাদ পরিবেশন করেই যাচ্ছে। দেশের প্রায় সবাই জানেন, আমি এবং আমাদের পরিবারের অন্য সদস্যরা স্থায়ীভাবে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করি। আমার ছেলে এখনে স্কুলে পড়াশোনা করে। কোন দরকার হলে বা লং হলিডেতে দেশে ঘুরতে আসি, আবার যখন প্রয়োজন হয় অস্ট্রেলিয়া ফিরে যাই। তাই আমাকে কি ডাকঢোল পিটিয়ে বলতে হবে কখন দেশে আসব বা কখন দেশ ছাড়ব? এখানে গোপনে দেশ ত্যাগের কি আছে? আমি প্রায় তিন সপ্তাহ পূর্বেই অস্ট্রেলিয়া চলে এসেছি। কিন্তু এতদিন পর মনে হয় করো করো ঘুম ভাঙল! আরও একটি কথা, যে ছবির মহরত হয়েছে সেটার শুটিং সময়মতোই হবে। আমার অস্ট্রেলিয়া ফিরে আসার কারণ ও সময় নেওয়ার বিষয়ে সিনেমার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা অবগত আছেন। আমি সবাইকে বিনীত অনুরোধ করব, আপনারা কোনো গুজবে, বা ভুয়া খবরে বিভ্রান্ত হবেন না। কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলে বা অন্য কোন সিনেমার আপডেট থাকলে আমিই আপনাদেরকে সময়মতো জানাব।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট