Saturday, February 24, 2024

অ’শ্লীল ছবি করিনি, যারা করেছে তারা ধরা ছোঁয়ার বাইরে : মুনমুন

‘মৌমাছি’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রের রূপালি পর্দায় আগমন ঘটে মুনমুনের। তিনি ১৯৯৭ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত একটানা সিনেমায় কাজ করেছেন। তবে অ’শ্লীলতার জন্য তার বিপক্ষে পদক্ষেপ গ্রহণ করে তৎকালীন সরকার।

এজন্য ২০০৩ সালের পর তার চলচ্চিত্রে উপস্থিতি কমে যায়। মুনমুন এখন সিনেমায় অনেক টাই অনিয়মিত।তবে অ’শ্লীল সিনেমার তকমা নিতে নারাজ মুনমুন। তার দাবি তিনি কোনো অ’শ্লীল সিনেমা করেননি। যারা অ’শ্লীল ছবি করেছেন তারা ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছেন। সম্প্রতি এই নায়িকা একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ময়মনসিংহে গিয়েছেন। সেখানেই সমকালের সাংবাদিককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি কোনো অশ্লীল ছবি করিনি, যারা করেছে তারা ধরা ছোঁয়ার বাইরে। আমার যদি সে রকম কিছু থাকত তাহলে আজ বের হত।

৬ বছরে ৮০ টির মতো সিনেমায় কাজ করেছেন মুনমুন। তবে ১ বছরে সিনেমার সংখ্যা হাতেগোনা ১০টির মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন। বলা যায় এখন অভিনয়ে একেবারেই অনিয়মিত। তাই এই নায়িকাকে নিয়ে খুব একটা আলোচনা হয় না। বিষয়টি উল্লেখ করে মুনমুন বললেন, ‘আমরা হচ্ছে সূর্যের মত। যতক্ষণ আলো থাকে ততক্ষণ আলোচনায় থাকে। আলো নেই কেউ মনেও রাখেন না।’

‘টারজান কন্যা’ ছবি দিয়ে আলোচনায় আসেন মুনমুন। আর ‘রানী কেন ডাকাত’ ছবি তাঁর জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয় বলে জানান তিনি। পরিচালক এহতেশামের মত যে পরিচালকের হাত ধরে শবনম, শাবানা, শাবনাজ, শাবনূরের মতো তারকারা পর্দায় এসেছেন সেই একই পরিচালকের হাত ধরে আসেন মুনমুনও। কিন্তু অন্যরা প্রশংসা নিয়ে বাঁচলেও মুনমুনকে অ’শ্লীর ছবির নায়িকার তকমা মাথায় নিয়ে ঘুরতে হচ্ছে। এ জন্য পরিচালক-প্রযোজকদের বেশি করে দুষলেন তিনি।

মুনমুন জানালেন, লেডি অ্যাকশন ছবিতে তাঁর ব্যাপক চাহিদা ছিল। ‘রানী কেন ডাকাত’ মুক্তির পর সবাই হুমড়ি খেয়ে পড়ল। প্রযোজক-পরিচালকেরা এ সময় মুনমুনকে ব্ল্যাকমেল করাও শুরু করেন বলে দাবি তাঁর। বললেন, ‘হঠাৎ করে আমার আলোচিত হওয়াটা অনেকে ভালোভাবে নিতে পারেননি। সত্যি কথা বলতে, আমি খুব পরিশ্রমী ছিলাম। চেষ্টা করতাম, অভিনয় ভালো করে করার। কিন্তু প্রযোজক–পরিচালকদের একটা গ্রুপের সঙ্গে আমার পোশাক নিয়ে প্রতিনিয়ত ঝগড়া হতো। মন–কষাকষি হতো। আমাকে স্বল্পবসনা হয়ে পর্দায় উপস্থিত করানোর জন্য চাপ দেওয়া হতো। প্রায় ছবিতে শর্টপ্যান্ট পরতে বাধ্য করতেন। আমারও বলার স্বাধীনতা ছিল না। তবে তখন শুধু একা আমি নই, অনেক নায়িকাই শর্টপ্যান্ট পরতেন, বদনাম হতো শুধু আমার!

সব শেষ মুনমুন অভিনীত ‘রাগী’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। ছবিটিতে খল চরিত্রে দেখা গেছে তাকে।

এই সম্পর্কিত আরও খবর

সর্বশেষ আপডেট