৩ মিনিটেই হলুদ দাঁত মুক্তোর মতো সাদা!

হলুদ দাঁত নিয়ে অনেকেই বিব্র্রত হন। এই দাঁতের কারণেই প্রাণ খুলে হাসতেও পারেন না অনেকে। বন্ধুদের সাথে বা অন্য কোথাও লজ্জায় পড়তে হয়।

নানা কারণে দাঁতে এই হলুৃদ দাগ দেখা দিতে পারে। দাঁতের অযত্ন, তামাক সেবন, নিয়মিত ওষুধ সেবন, পান মশলা কিংবা মদ পানের কারণে চলে যেতে পারে দাঁতের স্বাভাবিক শুভ্রতা।

যারা দাঁত হলুদ হয়ে যাওয়ার সমস্যায় ভুগছেন, তারা নানা উপায়ে দাঁতের স্বাভাবিক শুভ্রতা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেন। নানা ধরনের টুথপেস্ট, পাউডার, ফ্লস- অনেক রকমের কৌশল তারা এজন্য প্রয়োগ করে থাকেন। অনেক সময় এসবে কিছু কিছু উপকার পেলেও খুব একটা সুফল মেলে না। সেক্ষেত্রে তারা খোঁজেন এমন কোনো উপায় যা নিশ্চিতভাবে এবং দ্রুত হলুদ দাঁতকে সাদা করে তুলতে পারে।

তবে এমন এক উপায় আছে যে উপায়ে মাত্র ৩ মিনিটে হলুদ দাঁত হয়ে উঠবে ঝকঝকে সাদা। এই কৌশলকে কার্যকর করতে গেলে লাগবে মাত্র দুটি সাধারণ ঘরোয়া জিনিস। প্রথমটি বেকিং সোডা, এবং দ্বিতীয়টি পাতি লেবুর রস।

এবার জেনে নিন কী করতে হবে। একটি পাত্রে এক চা চামচ বেকিং সোডা নিন। এবার তাতে মিশিয়ে দিন অর্ধেক করে কাটা একটি পাতি লেবুর রস। এবার চামচে করে মিশিয়ে নিন দুটি উপাদান। দেখবেন, মিশ্রণটি প্রাথমিকভাবে ফেনা ফেনা আকার ধারণ করছে।

কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই দেখবেন মিশ্রণটির আকার হয়েছে  একটি ঘন তরলের মতো। এবার এই তরল আঙুলে করে তুলে দাঁতের উপরে লাগিয়ে দিন। মনে রাখবেন, দাঁত মাজার মতো করে দাঁতে মিশ্রণটি ঘষার প্রয়োজন নেই। মিশ্রণটি শুধু লাগিয়ে রাখুন দাঁতের উপরে। তিন মিনিট পরে কুলকুচি করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এবার তাকান আয়নার দিকে। দেখবেন, আপনার হলুদ দাঁত সাদা হয়ে গেছে।

দাঁত সাদা করার এটি একটি পরীক্ষিত ঘরোয়া টোটকা। দাঁতের বা মুখের কোনো ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা এতে নেই। আর এই কৌশলের কার্যকারিতা কতখানি, তা নিজেই যাচাই করে একবার দেখে নিন।