২০১৯ বিশ্বকাপে আমরা শিরোপার জন্যই খেলবো : সাকিব

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশ যে এখন একটি সমীহ জাগানিয়া দলে পরিণত হয়েছে এটি আর বলার অপেক্ষা রাখে না। যেকোনো শক্তিশালী দলকে হারানোর ক্ষমতা এখন টাইগারদের আছে। বলা যায় এশিয়া মহাদেশের নতুন ক্রিকেট পরাশক্তি দেশ এখন বাংলাদেশ।

ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে সাত নম্বর অবস্থানে থাকায় ২০১৯ সালের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার সুযোগ পাবে টাইগাররা।  তবে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার সুযোগেই সন্তুষ্ট থাকতে চান না জাতীয় দলের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, বরং বিশ্বকাপ জয়ও করতে চান তিনি।

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সাকিব বলেন, ‘এখন আমাদের ফর্ম বেশ ভাল। বড় কিছু করতে হলে এখান থেকে আমাদের উন্নতি করতে হবে, আর সেটা খুব বেশি দূরে নয়। ২০১৫ সালে আমরা ভাল একটা বিশ্বকাপ খেলেছি। এই চার বছর যারা দলে খেলছি তাদের অধিকাংশই ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ খেলবে। তখন আমাদের দলটা দারুণ হবে। আমার বিশ্বাস, তখন আমরা শিরোপার জন্যই খেলবো।’

তবে শুধু ওয়ানডে ক্রিকেটেই নয়, সাকিব জোর দিলেন ক্রিকেটের দীর্ঘ ফরম্যাট টেস্ট এবং আধুনিক ফরম্যাট টি টোয়েন্টিতেও। বললেন,‘শেষ দু’বছর আমরা যেভাবে খেলেছি, তাতে আমার মনে হয় না যে এখন কেউ আর আমাদের বিপক্ষে জিতে গেছে ধরে নিয়ে মাঠে নামে, বিশেষ করে ওয়ানডেতে।

তবে, এখনও আমাদের টি-টোয়েন্টি আর টেস্টে উন্নতি করার সুযোগ আছে। সবাই এখন দলের হয়ে কন্ট্রিবিউট করতে চায়। তবে, নিজেদের মধ্যে আরও উন্নতি আনার কোনো বিকল্প নেই।’

শ্রীলঙ্কান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের দেখানো পথে সাম্প্রতিককালে দুর্দান্ত খেলছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি কোচিং স্টাফের সদস্যরাও দলের জন্য যথেষ্ট করছেন বলে মনে করেন সাকিব। তাই তাদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানালেন দেশ সেরা এই ক্রিকেটার।‘কোচিং স্টাফদের কাছে আমাদের কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। ওরা আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে।

এখন আমাদের নিজেদের সেরাটা দেওয়া সহজ হয়েছে, আগে এখানে আমাদের ঘাটতি ছিল। আমরা পারবো – এই বিশ্বাসটা আমাদের এসেছে। এটাই এখন আমাদের পারফরম্যান্সের সবচেয়ে বড় ব্যাপার।