সাব্বির নিষেধাজ্ঞার ঝুঁকিতে!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা (আইসিসি) আচরণবিধি লঙ্ঘনের অপরাধে শাস্তির নতুন নিয়ম চালু করেছে। গত মাসেই শুরু করা এ শাস্তির প্রথম শিকার হন বাংলাদেশের সাব্বির রহমান। রোববার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আবারও শাস্তির খড়্গ নামল এ ড্যাশিং ব্যাটসম্যানের ওপর।

নিয়ম অনুযায়ী আগামী ২৪ মাস বেশ সতর্ক হয়ে খেলতে হবে সাব্বিরকে। নয়তো নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারেন তিনি।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী কোনো ক্রিকেটার আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে গুরুত্ব বিবেচনা করে ‘ডিমেরিট’ পয়েন্ট দেওয়া হয়। ২৪ মাসের মধ্যে কোনো ক্রিকেটার চারটি ডিমেরিট পেলে দুটি নিষেধাজ্ঞা পয়েন্ট যোগ হবে ওই ক্রিকেটারের নামে। আর দুই নিষেধাজ্ঞা পয়েন্ট মানে পরবর্তী একটি টেস্ট অথবা দুটি ওয়ানডে অথবা দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ওই ক্রিকেটারকে মাঠের বাইরে থাকতে হবে।

ইংল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচে বাটলারের সঙ্গে ঘটা ঘটনার সূত্র ধরে মাশরাফি, সাব্বিরকে ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা করা হয়। অন্যদিকে বাটলারকে তিরস্কার করা হয়। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, তিনজনকে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়।

বাটলার ও মাশরাফি পেয়েছেন একটি করে ডিমেরিট। যেখানে সাব্বিরের কাছে এ সংখ্যাটা তিন! গত ২৬ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের সঙ্গে খেলায় আম্পায়ারের সঙ্গে অসদাচরণের জন্য জরিমানা গুনতে হয় সাব্বিরকে।

ম্যাচের ৩০ শতাংশ ফি কেটে নেওয়ার পাশাপাশি দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়। গতকাল ইংল্যান্ডের সঙ্গে একটি ডিমেরিট পাওয়ায় তাঁর ডিমেরিট স্কোর এখন তিন!

অর্থাৎ স্বল্পসময়ের নিষেধাজ্ঞা এড়াতে সাব্বিরকে ঠান্ডা মাথায় খেলতে হবে। চার পয়েন্ট পেলেই ধেয়ে আসবে নিষেধাজ্ঞার খড়্গ।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর আইসিসি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে আফগানিস্তানের সঙ্গে ম্যাচে পানি পানের বিরতির সময় সাব্বির আম্পায়ার সৈকতের কাছে গিয়ে তাঁকে দেওয়া এলবিডব্লিউর সিদ্ধান্ত নিয়ে জানতে চান। এ ছাড়া তিনি আম্পায়ারের সঙ্গে অগ্রহণযোগ্য ভাষাও ব্যবহার করেছেন। তাই তাঁকে এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে।