বিপিএল ফোর প্রাইসে সাকিবই শীর্ষে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসর বেশ ধুমধামেই মাঠে গড়াবে। আরো আকর্ষণীয় করতে আইকন খেলোয়াড়দের ফোর প্রাইসের মানও বাড়ানো হয়েছে। আর সেই তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন বাংলাদেশের তিন ফরম্যাটেই শীর্ষ উইকেট শিকারি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। যেখানে তার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৫ লাখ টাকা। এরপরেই রয়েছেন বিপিএলের ছয় আইকন খেলোয়াড় মুশফিকুর রহীম (৫০ লাখ), তামিম ইকবাল (৫০ লাখ), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (৫০ লাখ), মাশরাফি বিন মুর্তজা (৫০ লাখ), সাব্বির রহমান (৪০ লাখ) ও সৌম্য সরকার (৪০ লাখ)। নাসির হোসেন সম্ভবত এবার আইকন তালিকায় থাকছেন না।

যেখানে তার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৫ লাখ টাকা। এরপরেই রয়েছেন বিপিএলের ছয় আইকন খেলোয়াড় মুশফিকুর রহীম (৫০ লাখ), তামিম ইকবাল (৫০ লাখ), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (৫০ লাখ), মাশরাফি বিন মুর্তজা (৫০ লাখ), সাব্বির রহমান (৪০ লাখ) ও সৌম্য সরকার (৪০ লাখ)। নাসির হোসেন সম্ভবত এবার আইকন তালিকায় থাকছেন না।

এবারের আসরে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ১১ জন খেলোয়াড়ের মূল্যমান রাখা হয়েছে ২৫ লাখ। ‘বি’ ক্যাটাগরির ৩৫ জনের মূল্যমান ১৮ লাখ করে, ‘সি’ ক্যাটাগরিতে ৫২ জনের ১২ লাখ করে ও ‘ডি’ ক্যাটাগরির ২৮ জনকে ৫ লাখ করে মূল্যমান রাখা হয়েছে। মোট ১৩৩ জন খেলোয়াড়কে ৩০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের লটারি। ৪ নভেম্বর মাঠে গড়াবে বিপিএলের এবারের আসর।

প্রাথমিকভাবে আইকন খেলোয়াড়দের দলভুক্তির েেত্র তিনটি পদ্ধতি আলোচনা করা হয়েছিল। প্রথমত. আইকন খেলোয়াড়রা নিজেরাই নিজের দল বেছে নেয়ার সুযোগ পাবেন। দ্বিতীয়ত. ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো নিজেদের প্রয়োজনে সমঝোতার ভিত্তিতে বেছে নেবে আইকন খেলোয়াড়। তৃতীয়ত. বিসিবি এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে। শেষ পর্যন্ত বিপিএল গভর্নিং বডি লটারির মাধ্যমেই আইকন প্লেয়ার নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয়।

এ বিষয়ে গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, ‘বিপিএলের আইকন খেলোয়াড়দের দল লটারির মাধ্যমেই চূড়ান্ত হবে। সাত আইকন খেলোয়াড়কে পাবে সাতটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। এখানে আর কোনো পরিবর্তনের সম্ভবনা নেই। তিনটি পদ্ধতি আলোচনায় এলেও লটারির সিদ্ধান্তেই সবাই একমত।’

জানা গেছে, বিপিএলের গত আসরের পাঁচটি দল তাদের গতবারের স্কোয়াড থেকে দুইজন খেলোয়াড় রাখতে পারবে। সে েেত্র আইকনসহ দুইজন কিনা তা এখনো জানা যায়নি। যদি আইকনসহ দুইজন খেলোয়াড় রেখে দেয়ার নিয়ম হয় তবে অধিকাংশ েেত্রই আইকনদের দল পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।