বিপিএলের ১৩৩ দেশী ক্রিকেটারের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসরের খেলোয়াড়দের লটারী হবে ৩০ সেপ্টেম্বর। এদিকে দেশী ১৩৩ ক্রিকেটারের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটি। যেখানে আইকন ক্যাটাগরিতে আছেন ৭ জন, ‘এ’ ক্যাটাগরিতে ১১ জন, ‘বি’ ক্যাটাগরিতে ৩৫, ‘সি’ ক্যাটাগরিতে ৫৩ জন ও ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে ২৭ জন ক্রিকেটার।

আইকন ক্যাটাগরি: সাকিব আল হাসান (৫৫ লাখ টাকা), মাশরাফি বিন মুর্তজা (৫০ লাখ টাকা), মুশফিকুর রহিম (৫০ লাখ টাকা), তামিম ইকবাল (৫০ লাখ টাকা), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৫০ লাখ), সাব্বির রহমান ( ৪০ লাখ টাকা) এবং সৌম্য সরকার (৪০ লাখ টাকা)।

আগের আসরে আইকন ক্রিকেটারদের ভিত্তি মূল্য ছিলো ৩৫ লাখ টাকা। এবারের আসরে আইকন আইকন খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্য বাড়ানো হলেও অন্য ক্যাটাগরিতে তা কমানো হয়েছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের এই আসরে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে থাকা খেলোয়াড়দের ভিত্তি মূল্য করা হয়েছে ২৫ লাখ টাকা (আগের আসরে যা ছিলো ২৮ লাখ টাকা)। ‘বি’ ক্যাটাগরিতে থাকা ক্রিকেটারদের ভিত্তি মূল্য করা হয়েছে ১৮ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিলো ২২ লাখ টাকা)। ‘সি’ ক্যাটাগরির ভিত্তি মূল্য ১২ লাখ টাকা (আগের আসরে ছিল ১৫ লাখ টাকা)। তবে ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে থাকা ক্রিকেটারদের ভিত্তি মূল্যের পরিবর্তন করা হয় নি, আগের আসরের মতো এবারের আসরেও এই ক্যাটাগরিতে থাকা ক্রিকেটাররা পাবেন ৫ লাখ টাকা।

‘এ’ থেকে ‘ডি’ ক্যাটাগরিতে থাকা ক্রিকেটারদের তালিকা-

এ’ ক্যাটাগরি (২৫ লাখ টাকা): ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, লিটন কুমার দাস, শুভাগত হোম চৌধুরী, নাসির হোসেন, মো: মিঠুন, মুমিনুল হক, তাসকিন আহমেদ, আল-আমিন হোসেন, রুবেল হোসেন ও আব্দুর রাজ্জাক।

‘বি’ ক্যাটাগরি (১৮ লাখ টাকা) : নুরুল হাসান সোহান, অলক কাপালি, সোহাগ গাজী, আবু হায়দার রনি, মোশাররফ হোসেন রুবেল, আরাফাত সানি, তাইজুল ইসলাম, শামসুর রহমান, সৈকত আলী, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, শাহরিয়ার নাফিস আহমেদ, নাঈম ইসলাম, রনি তালুকদার, নাজমুল হোসেন মিলন, জহুরুল ইসলাম, রকিবুল হাসান, মার্শাল আইয়ুব, মো: আল-আমিন, মাহমুদুল হাসান, আরিফুল হক, আবুল হাসান রাজু, জিয়াউর রহমান, মুক্তার আলী, আলাউদ্দিন বাবু, শফিউল ইসলাম, মো: শহীদ, কামরুল ইসলাম রাব্বি, শুভাশীষ রায়, সাকলাইন সজীব, এনামুল হক জুনিয়র, সানজামুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন অপু, সোহরাওয়ার্দী শুভ ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

‘সি’ ক্যাটাগরি (১২ লাখ টাকা) : আব্দুল মজিদ, মেহেদী মারুফ, ইমতিয়াজ হোসেন তান্না, আসিফ আহমেদ রাতুল, নাদিফ চৌধুরী, তাসামুল হক, মোহাম্মদ শরীফ, জুবায়ের হোসেন লিখন, রাজিন সালেহ, তুষার ইমরান, মেহরাব জুনিয়র, মাইশুকুর রহমান, ইরফান শুক্কুর, অভিষেক মিত্র, মাহবুবুল করিম, অমিত মজুমদার, ধীমান ঘোষ, তানভীর হায়দার, হামিদুল ইসলাম হিমেল, সাদমান ইসলাম, মিজানুর রহমান, জুবায়ের আহমেদ, ফজলে আহমেদ রাব্বি, জাবিদ হোসেন, ইয়াসির আলী চৌধুরী, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, জাকির হাসান, জুনায়েদ সিদ্দিকী, ফরহাদ হোসেন, মেহেদী হাসান, সাইফউদ্দিন, শরীফউল্লাহ, মোহাম্মদ ফুরকান, রবিউল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন, মাহবুবুল আলম, আবু জায়েদ রাহী, দেওয়ান সাব্বির রহমান, শহীদুল ইসলাম, ডলার মাহমুদ, সাজেদুল ইসলাম, নাজমুল হোসেন, ইলিয়াস সানি, নিহাদুজ্জামান, আসিফ হাসান, নাঈম জুনিয়র, মনির হোসেন, বিশ্বনাথ হালদার, রাহাতুল ফেরদৌস, নাবিল সামাদ, নুর হোসেন মুন্না ও শাহাদাত হোসেন।

‘ডি’ ক্যাটাগরি (৫ লাখ টাকা) : জয়রাজ শেখ, পিনাক ঘোষ, শাফিউল হায়াত রিদয়, জাকের আলী অনিক, সাঈদ সরকার, আশিকুজ্জামান, নুর আলাম সাদ্দাম, এবাদত হোসেন, আব্দুল হালিম, সনজিত সাহা, আরিফুল ইসলাম জনি, সালেহ আহমেদ শাওন, আহমেদ সাদিকুর রহমান, মেহরাব হোসেন জোসি, রাসেল আল মামুন, রেজাউল করিম রাজিব, হাবিবুর রহমান জনি, তাওহীদুল ইসলাম রাসেল, মেহেদী হাসান রানা, ইসামুল আহসান আবির, নাসুম আহমেদ, ইফতেখার সাজ্জাদ, মুরাদ খান, হুমায়ন কবির শাহীন, অমিতাভ নয়ন, রনি ও জুপিটার ঘোষ।

উল্লেখ্য, বিপিএলের তৃতীয় আসরের যে পাঁচ দল এবারের আসরেও আছে তারা গতবারের স্কোয়াড থেকে দুইজন খেলোয়াড়কে রেখে দিতে পারবে। এরিমাঝে পছন্দের দুই ক্রিকেটারের নাম বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির কাছে জমা দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। তবে এই সুবিধা পাচ্ছে না এবারের আসরে দুই নতুন দল খুলনা ও রাজশাহী। ৩০ সেপ্টেম্বরের লটারীতে রাখা হবে না এই ক্রিকেটারদের। ৪ নভেম্বর শুরু হয়ে ডাবল লিগ পদ্ধতিতে চলবে এই টুর্নামেন্ট। ডিসেম্বরের ৭ বা ৮ তারিখ বিপিএল সমাপ্ত হবার কথা রয়েছে। এবারের আসরের সব ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ঢাকা ও চট্টগ্রামে। — বিডিক্রিকটিম