বিপিএলের সাত দলের খরচের আদ্যোপান্ত

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর মাঠে গড়াবে আগামী চার নভেম্বর। চূড়ান্ত হয়ে গেছে সাত দলের খেলোয়াড়-কোচিং স্টাফরাও। শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের সাত দলের খেলোয়াড় নির্বাচন – ‘প্রক্রিয়া প্লেয়ার বাই চয়েজ’। এই খেলোয়াড় বন্টন প্রক্রিয়া থেকে ৬৪ জন দেশি ও ২৩ বিদেশি ক্রিকেটারকে চূড়ান্ত করেছে দলগুলো।

তবে এই প্রক্রিয়ার আগেই বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সিদ্ধান্তে আগের আসর থেকে দু’জন করে ক্রিকেটার রেখে দিতে পেরেছে দলগুলো। ফলে পুরনো পাঁচ দলের হয়ে খেলবেন ১০ ক্রিকেটার। শীর্ষ সাত ক্রিকেটারকে ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরিতে ভাগাভাগি করে নিয়ে ফেলেছে সাত শীর্ষ দল। এছাড়াও ৩১ জন বিদেশি ক্রিকেটারকে সাতটি দল চূড়ান্ত করে ফেলেছিল আগেই।

এসব খেলোয়াড়দের দলে ভেড়াতে সবচেয়ে বেশি খরচ করেছে চিটাগং ভাইকিংস। তারা ব্যয় করেছে মোট তিন কোটি ৭৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা। আর সবচেয়ে কম টাকা ব্যয় করেছে বরিশাল বুলস। তারা দুই কোটি ৮৬ লাখ টাকায় তাদের দল গুছিয়েছে।

বিপিএলের এবারের আসরে সাতটি দল তাদের খেলোয়াড়দের জন্য মোট ব্যয় করেছে ২২ কোটি ৬০ লাখ ৪০ হাজার টাকা। যা গেল বছরের তুলনায় নয় কোটি টাকা কম। গেল বছর ছয় দলের বিপিএলে মোট খরচের পরিমাণ ছিল ৩১ কোটি টাকার মতো।-প্রিয়