বাংলাদেশি ছবিতে কলকাতার আরো এক নায়িকা

বাংলাদেশি ছবিতে কলকাতার নায়ক-নায়িকাদের অভিনয় নতুন কিছু নয়। তবে সাম্প্রতিককালে পরিমাণটা বেড়েছে অনেক। এককালে প্রসেনজিৎ, ঋতুপর্ণারা এদেশের চলচ্চিত্রের দর্শকদের মন জয় করার চেষ্টা করেছেন।

আর হালের জিৎ, শ্রাবন্তী, ইন্দ্রনীল, অঙ্কুশ, শুভশ্রীরা বেশ ভালোই সাফল্য পেয়েছেন এপারের ছবিতে। নতুন করে শোনা যাচ্ছে ঢাকাই ছবিতে নাম লেখাচ্ছেন কোয়েল মল্লিক, মিমি, পরমব্রতরা। সেই তালিকায় নতুন করে এলো আরো এক নায়িকার নাম। তিনি হলেন ‘আরশীনগর’ খ্যাত ঋতিকা সেন।

জানা গেছে, ‘গাদ্দার’ নামের একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। সবরকম আনুষ্ঠানিকতা সেরে শিগগিরই নায়িকার নাম ঘোষণা করবে ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। আপাতত চলছে প্রাথমিক প্রস্তুতি।

ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, এই ছবিতে ঋতিকার বিপরীতে থাকবেন ঢাকাই ছবির নতুন প্রজন্মের নায়ক শ্রাবণ খান। এটি পরিচালনা করবেন দুই বাংলার স্বনামধন্য দু’জন পরিচালক। যৌথ প্রযোজনার ছবিটির শুটিং হবে ঢাকাসহ কলকাতার বিভিন্ন লোকেশনে।

প্রসঙ্গত, ঋতিকা সেন কলকাতার উঠতি নায়িকাদের মধ্যে অন্যতম একজন। তিনি জিতের ‘হান্ড্রেড পারসেন্ট লাভ’ ছবিতে কোয়েল মল্লিকের বোনের চরিত্রে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন। এরপর নায়ক বনির বিপরীতে ‘বরবাদ’ এবং সর্বশেষ দেবের নায়িকা হয়ে ‘আরশিনগর’ ছবিতে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পান। বর্তমানে তাকে নিয়ে টালিগঞ্জের প্রযোজকরা নতুন করে ভাবতে শুরু করেছেন।

অন্যদিকে, ঢাকাই ছবিতে নতুন মুখ হলেও শ্রাবণ খান অভিনীত দু’টি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ২০১২ সালে আবুল কালাম আজাদ পরিচালিত ‘তোমার সুখেই আমার সুখে’ এবং ২০১৩ সালে একই নির্মাতার ‘তোমার আছি তোমারই থাকবো’। বর্তমানে শ্রাবণ অভিনীত সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘ওয়াও বেবি ওয়াও’ ছবিটি রয়েছে নির্মাণাধীন।