ফুলবাড়িতে হনুমানের আবির্ভাব পিছু ছুটছে শতশত দর্শনার্থী

প্লাবন গুপ্ত শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: হঠাৎ করে দিনাজপুরের ফুলবাড়ি ও বড়পুকুরিয়া খয়লাখনি এলাকায় আবির্ভাব ঘটেছে কালো মুখ ও লম্বা লেজ ওয়ালা এক হনুমানের। পৌর শহরের বিভিন্ন মহল্লায় মহল্লায় ঘুরছে হনুমানটি।

গতকাল শনিবার হনুমানটির দেখা মেলে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির আবাসিক কোয়ার্টারের ছাদের ওপর। হনুমানটিকে দেখতে তার পিছু নিয়েছে এলাকার শত শত নারী-পুরুষ-শিশুরা। অনেকেই তাকে খেতে দিচ্ছেন কলা, রুটি, বিস্কুট, আপেলসহ বিভিন্ন ফলমুল। লোকজনের ভীড় কমলে ফলমুল খেয়ে সে আবার ঘরের ছাদে বা গাছে উঠে পড়ছে।

দর্শনার্থী মালা রানী বলেন, হনুমানটিকে কেউ ঢিল ছুড়লে কিংবা মারার চেষ্টা করলে সে অনেকটা মানুষের মতো দু’হাত জোড় করে ক্ষমা চাওয়ার ভঙ্গি করছে। তবে কলা ছুঁড়ে দিলে সেটি অনেক দেরি নিয়ে খাচ্ছে। তার আচরণ সবকিছুই পুরোপুরি মানুষের মতোই। তবে কিছুক্ষণ পরপর জায়গা পরিবর্তন করছে।

স্থানীয়রা বলেন, হনুমানটিকে আটক করে দ্রুত নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া না হলে উৎসুক দর্শানার্থীদের হাতে যে কোন মুহুর্তে তার প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনেকেই আশংকা করছেন।

ফুলবাড়ি পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক বলেন, বেশ কিছুদিন থেকে কালো মুখের হনুমানটি ফুলবাড়ি শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। যে স্থানে যাচ্ছে সেখানে মানুষের ঢল নামছে। হনুমানটির প্রাণ বাঁচাতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন।

বন বিভাগের মধ্যপাড়া রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা রঞ্জিবুল আমিন বলেন, হনুমান বিচরণের খবর পাওয়া গেছে। তাকে আটক করার মতো তাদের তেমন কোন ব্যবস্থা না থাকায় তাকে আটক করা যাচ্ছে না। তবে তার গতিবিধির ওপর সার্বক্ষণিকভাবে নজরদারি রয়েছে বন বিভাগের।