নিজেদের প্রমাণের সুযোগ পাচ্ছেন সাব্বির-সৌম্য-নাফিস

আজ সকালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দু’টি দু’দিনের প্রস্তুতিমূলক ম্যাচের প্রথমটি খেলতে মাঠে নামছে বাংলাদেশ বিসিবি একাদশ। এ ম্যাচে বিসিবি একাদশের হয়ে খেলবেন সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার ও শাহরিয়ার নাফীস। তিনজনই ভালো মানের খেলোয়াড়। তবে সৌম্য সরকার ও শাহরিয়ার নাফীস অনেক ধরেই টেস্ট দলে নেই। আর সাব্বিরের এখনও টেস্ট অভিষেক হয়নি।

টেস্ট সিরিজের নিজেদের প্রমাণের সুযোগ পাচ্ছেন সাব্বির, সৌম্য ও নাফিস। ভালো পারফরমেন্স করলে, নির্বাচকদের চোখে পড়বেন তারা। কারণ, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের দল এখনো ঘোষণা করেনি বিসিবি। পাশাপাশি অন্য খেলোয়াড়দেরও পরখ করে নেবেন নির্বাচকরা।

বাংলাদেশের হয়ে ২৯টি ওয়ানডে ও ২৬টি টুয়েন্টি টুয়েন্টি খেললেও, এখনও টেস্ট খেলেননি সাব্বির। তাই সাব্বিরের লক্ষ্য থাকবে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে ভালো পারফরমেন্স করে প্রথমবারের মত টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়া। এদিকে, ২০১৫ সালে সর্বশেষ বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন সৌম্য। পাকিস্তানের বিপক্ষে ২টি ও ভারতের সাথে একটি টেস্ট খেলেন তিনি। কিন্তু নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সৌম্য। ৫ ইনিংসে ১০৭ রান করেন তিনি। ফলে পরের সিরিজেই আর দলে সুযোগ পাননি সৌম্য। তাই আবারো টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়ায় আশায় আছেন তিনি।

টেস্ট স্কোয়াডে ফেরার স্বপ্ন রয়েছে নাফিসেরও। একসময় বাংলাদেশের টেস্ট দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। ২৪ টেস্টে ১টি সেঞ্চুরি ও ৭টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১২৬৭ রান করেছেন এ ক্রিকেটার। ২০১৩ সালে বাংলাদেশের হয়ে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেন ৩১ বছর বয়সী নাফিস।

প্রথম প্রস্তুতিমূলক ম্যাচটি হবে চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে। একই ভেন্যুতে দ্বিতীয়টি হবে আগামী ১৬ অক্টোবর। জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে আগামী ২০ অক্টোবর থেকে শুরু হবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথমটি।
প্রথম প্রস্তুতিমূলক ম্যাচের জন্য বিসিবি একাদশের স্কোয়াড : সাব্বির রহমান (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, শাহরিয়ার নাফীস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, শুভাগত হোম, নুরুল হাসান, রুবেল হোসেন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আবু জায়েদ রাহি, এবাদত হোসেন ও সাদমান ইসলাম।