তামিমকে দায়ী করে যুদ্ধের ঘোষণা দিলেন ইংলিশ ক্রিকেটার স্টোকস!

একের পর ইংলিশ ব্যাটসম্যান যখন প্যাভিলিয়নে ফিরছেন, সফরকারীদের শেষ আশা হয়ে তখনো ক্রিজে টিকে ছিলেন অধিনায়ক জস বাটলার। তাসকিনের ইনসুইং আঘাত হানে বাটলারের পায়ে। আম্পায়ার শরিফুদ্দৌলা অবশ্য প্রথমে আউট দেননি। পরে রিভিওয়ের সিদ্ধান্ত যায় বাংলাদেশের পক্ষে যায়।

জয় প্রায় নিশ্চিত হওয়ায় সীমা ছাড়ায় টাইগার ক্রিকেটারদের উদযাপন। তবে বাংলাদেশের এমন বাধভাঙা উদযাপনটা মোটেও ভালো লাগেনি বাটলারের। এই সময় বাটলার কিছু বলাতে টাইগার ক্রিকেটারদের সাথে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন ইংলিশ অধিনায়ক।

শেষে সংবাদ সম্মেলনেও প্রতিপক্ষ ক্রিকেটারদের বিষয়টা গোপন করেননি বাটলার। জানান, আউট হবার পর অমন উদযাপন তার কাছে খুব বেশি বাড়াবাড়ি মনে হয়েছে। ঘটনা অবশ্য এখানেই শেষ হয়নি।

জয়ের পর বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা যখন ইংলিশ ক্রিকেটারদের সঙ্গে হাত মেলাতে যান তখনও সেই ঘটনার রেশ দেখা যায় দুদলের ক্রিকেটোরদের মধ্যে। তামিমের সঙ্গে তর্ক শুরু করেন বেন স্টোকস। বাংলাদেশী এই ব্যাটসম্যানের সাথে হাত পর্যন্ত মেলাননি ইংলিশ অলরাউন্ডার।

পরে টুইটারে এই ঘটনার জন্য তামিমকেই দায়ী করেন স্টোকস। তিনি তার টুইটে জানান, তামিমই নাকি ধাক্কা দেন বেয়ারস্টোকে। টুইটারে স্টোকস লিখেছেন, ‘জয়ের জন্য বাংলাদেশকে অভিনন্দন। দারুণ খেলেছে তারা। তবে কেউ হাত মেলানোর সময় আমার সতীর্থকে কাঁধ দিয়ে ধাক্কা দিলে সেটা আমি চুপচাপ মেনে নেবো না।’

টুইটারে কারো নাম উল্লেখ না করলেও তামিমকে উদ্দেশ্য করেই যে এ কথা বলেছেন স্টোকস তা তো না বললেও বোঝা যায়। এরপরই যুদ্ধের ঘোষণা দিয়ে বসেন এই অলরাউন্ডার। ‘আশা করছি পরের ম্যাচটা জিতে টেস্ট সিরিজেও এই ধারাটা বজায় রাখতে পারবো।’ এই ঘটনায় অবশ্য তামিমের প্রতিক্রিয়া এখনো জানা যায়নি।