টেস্টে সুযোগের অপেক্ষায় তাসকিন

টেস্ট ক্রিকেটে সুযোগের অপেক্ষায় রয়েছেন ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ। ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য স্কোয়াডে ডাক পেয়েছেন এই পেসার।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, “লংগার ভার্সন ক্রিকেটে শারীরিকভাবে তাসকিন কীভাবে মানিয়ে নেয় সেজন্য আমক্রা দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচের স্কোয়াডে তাকে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা আগে চেয়েছিলাম তাকে জাতীয় ক্রিকেট লিগের চতুর্থ রাউন্ডে খেলাবো, কিন্তু আমরা সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি।”

ফিটনেস নিয়ে সমস্যা থাকলেও নিষেধাজ্ঞার পর তাসকিনের অসাধারণ প্রত্যাবর্তনে তাকে লংগার-ভার্সন ক্রিকেটে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্বাচিকিরা।

নান্নু জানান, “টেস্ট দলে আমরা তাসকিনের মতো বোলারকে চায়, তবে আপনারা সবাই জানেন যে তার ফিটনেস নিয়ে বড় সংশয় ছিলো। কিন্তু সে নিষেধাজ্ঞা থেকে দারুণভাবে ফিরেছে এবং ছন্দে ছিলো। ফিটনেস নিয়ে তার কোনো অসুবিধা নেই, তাই তাকে লংগার-ভার্সন ক্রিকেটে নিয়ে আসতে আমরা প্রথম ধাপ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

“নিউজিল্যান্ডে আমাদের টেস্ট সিরিজ আছে, তাই এটা দারুণ হবে আমাদের জন্য যদি সে ইতিবাচক কিছু দেখায়।”

জাতীয় দলের পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনের কণ্ঠেও একই কথা।

“আপনারা দেখেছেন সে নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরে দারুণ বোলিং করেছে এবং তার বলে গতি ছিলো। আমরা এরকম বোলার চাই লংগার-ভার্সন ক্রিকেটে, কিন্তু তার টেস্ট দলে সুযোগ পাওয়ার কথা বললে একটু তাড়াতাড়িই হয়ে যায়। আগে আমাদের দেখতে হবে সে দুই-দিনের ম্যাচে কেমন করে।

“আমি তার ফিটনেস বা বডি স্ট্রেন্থ নিয়ে কথা বলার সঠিক লোক নই, তবে এইটুকু বলতে পারি এ সে আগে থেকে অনেক ভালো করছে,” বলেছেন সুজন।

সাদা পোশাকে ফিরতে উচ্ছ্বাসিত তাসকিন আহমেদ। চট্টগ্রাম থেকে দ্যা ডেইলি স্টারকে তিনি বলেন, “এটা মাত্র দুই দিনের ন্যাচ, তারপরও আমি উচ্ছ্বাসিত কারণ আমি সাড়ে তিন বছর পর সাদা পোশাকে ফিরতে পারবো। এই স্বপ্ন আমার হৃদয়ে ছিলো অনেকদিন ধরে। এখন দেখি কেমন যায়।

“আমি অনেক পরিশ্রম করছি ও আমার শরীরও ভালোভাবে সাড়া দিচ্ছে। হ্যাঁ, আমাকে কিছু কাজ নিজে থেকে সামলাতে হবে তবে আমি জানি আমাকে এই কাজগুলো করতে হবে টেস্ট খেলার স্বপ্ন পূরণ করার জন্য। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরে ওয়ানডে সিরিজে আমার পারফর্ম্যান্সে খুশি আর আশা করি সামনে আরও ভালো করবো।”

এখন ১০ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ১৯ উইকেট শিকার করেছেন তাসকিন। সেরা ৪/৬৬।bdcricteam