ইংল্যান্ডের হার ও বাটলারের সমালোচনায় যা লিখলো ব্রিটিশ গণমাধ্যম

ইতিহাসের নাকি পুনরাবৃত্তি হয়। সেটা শুধু বইয়ের পাতায় লিখা নয়। বাস্তবেও যে হয় , গতকাল (রোববার) রাতে তা আবারও প্রমাণ হলো। ইতিহাস ও পরিসংখ্যান জানান দিচ্ছে, ছয় বছর আগে ব্রিস্টলে ইংল্যান্ডের সঙ্গে প্রথম জয়ের চালচিত্রের সাথে গতকাল শেরেবাংলায় টাইগারদের জয়ের দৃশ্যপটের মিল অনেকটাই।

বলার অপেক্ষা রাখে না, ২০১০ সালের ১০ জুলাই ব্রিস্টলে মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে একদিনের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডকে প্রথম হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ৫ রানের ঐতিহাসিক ওই জয়ের মিশনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মাশরাফি। মিরপুরে রবিবার যেমন ব্যাট ( ২৯ বলে ৪৪ ) ও বলে ( ২৯ রানে ৪ উইকেট) সমান দক্ষতায় দলের জয়ের নায়ক হয়ে ম্যাচ সেরা নড়াইল এক্সপ্রেস।

এবার বাংলাদেশের কাছে প্রথম ম্যাচে হারের লজ্জা থেকে ভাগ্যক্রমে রক্ষা পায় ইংল্যান্ড। কিন্তু দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে আর ভাগ্য পক্ষে ছিলো না তাদের। বাংলাদেশের কাছে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে হারের পর ইংল্যান্ড দলের মৃদু সমালোচনা ব্রিটিশ মিডিয়াগুলোতে।

টাইগারদের সাম্প্রতিক শক্তিমত্তার বিচার করেছে দেশটির গণমাধ্যম। তবে বাংলাদেশের জয়ের খবরের পাশাপাশি বড় করে তুলে ধরেছে দুই ইংলিশ খেলোয়াড় অধিনায়ক জস বাটলার ও সহ-অধিনায়ক বেন স্টোকসের উত্তেজিত আচরণের প্রসঙ্গ।

ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান ম্যাচ নিয়ে দুটি প্রতিবেদন করেছে। একটিতে বলেছে, মাশরাফি মর্তুূজার নেতৃত্বে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সিরিজে সমতায় ফিরলো বাংলাদেশ। তারা ভেতরে লিখেছে, প্রায় একহাতে ম্যাচ ধরে রাখা বাটলার ও তার উদ্দীপ্ত মেজাজকে ধরিয়ে জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

অন্য প্রতিবেদনে গার্ডিয়ান বলেছে, জস বাটলার তার উইকেট হারানোর পর বাংলাদেশের উদযাপন দ্বারা বিপর্যস্ত।

টেলিগ্রাফ লিখেছে, ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ওয়ানডে হারান পর বাটলার ও স্টোকস বাংলাদেশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়েছে।

দ্য ইন্ডিপেডেন্ট লিখেছে, অধিনায়ক জস বাটলালের একার লড়াই ব্যর্থ করে দিয়ে ম্যাচ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ। সেই সাথে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফির বীরত্বের কথাও তুলে ধরেছে পত্রিকাটি।

তবে বাকিরা নরম সুরে ইংল্যান্ডের হারের কথা লিখলেও বেশ ঝাঝালো শব্দ ব্যবহার করেছে ডেইলি মেইল। তারা লিখেছে, কদর্য দৃশ্যের অবতারণা করে বাংলাদেশের কাছে হারলো ইংল্যান্ড।

বিবিসি লিখেছে, ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় দ্বিতীয় ওয়ানডেতে হারলো ইংল্যান্ড। বাংলাদেশের কাছে হেরে যারপনাই হতাশ দলের অধিনায়ক জস বাটলার।