আবারো ‘আয়নাবাজি’ ছড়িয়ে গেল সারাদেশে

গত ৩০ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছে ‘আয়নাবাজি’ বাংলাদেশের ২১টি প্রেক্ষাগৃহে। তবে সারাদেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রেক্ষাগৃহেই গিয়েছিলো। ঠিক দুই সপ্তাহরে পর দর্শকদের প্রতিক্রিয়া দেখেই এখন তা আবার নতুন করে সারাদেশের ২৪টি হলে মুক্তি পেয়েছে ১৪ অক্টোবর।

এই ধরনের ছবি যদি হতে থাকে তাহলে হলের পরিবেশ পরিবর্তন হতে বাধ্য।’ এ কথা বলেছিলেন চলচ্চিত্রটির নির্মাতা অমিতাভ রেজা। এখন দেখার অপেক্ষা সারাদেশে আবারও নতুন করে কি ঘটতে চলছে ‘আয়নাবাজী’ নিয়ে।

এই চলচ্চিত্রে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী ও উপস্থাপিকা মাসুমা রহমান নাবিলা। রাশেদ জামানের সিনেমাটোগ্রাফি, ইকবাল কবির জুয়েলের সম্পাদনা এবং রিপন নাথের সাউন্ড করেছেন।
gvdfv
সিনেমার মূল কাহিনী ও ভাবনা গাউসুল আলম শাওনের। চিত্রনাট্য লিখেছেন অনম বিশ্বাস ও গাউসুল আলম শাওন। আয়নাবাজিতে আরও অভিনয় করছেন লুত্ফর রহমান জর্জ, শওকত ওসমান, গাউসুল আলম শাওন, এজাজ বারী প্রমুখ।

কনটেন্ট ম্যাটার লিমিটেড প্রযোজিত এবং হাফ স্টপ ডাউন লিমিটেড নিবেদিত ‘আয়নাবাজি’র নির্বাহী প্রযোজক এশা ইউসুফ। গানগুলো তৈরি করেছেন ফুয়াদ, অর্ণব, হাবিব ও চিরকুট ব্যান্ডের সদস্যরা। — প্রিয়