আগামীকাল হারাতে পারলেই ওয়ানডেতে “বাংলাওয়াশ” হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ইতোমধ্যে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জয় লাভ করেছে বাংলাদেশ। এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দাঁড়িয়ে রয়েছে হোয়াইটওয়াশের সামনে। চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে ম্যাচে জয়লাভ করতে পারলে বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে ১৩তম হোয়াইট ওয়াশ করবে টাইগাররা। দীর্ঘ ১০ মাসের অপেক্ষার পর বাংলাদেশের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে এবং দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় ক্রিকেট দল।

এদিকে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামীকাল ২৫শে জানুয়ারি চট্টগ্রামে তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডে ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। সিরিজ জয়লাভ করার কারণে শেষ ওয়ানডে ম্যাচে একাদশে আসতে পারে পরিবর্তন। বিশেষ করে অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের একাদশে থাকাটা একপ্রকার নিশ্চিত। বিগত কয়েকটি সিরিযজ ধরে বাংলাদেশ ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি দলের নিয়মিত মুখ ছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টই ইনজুরিতে পড়ার কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম দুটি ওয়ানডে খেলা হয়নি সাইফুদ্দিনের। তবে তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচের ফাস্ট বোলর রুবেল হোসেনের পরিবর্তে একাদশে দেখা যেতে পারে সাইফুদ্দিনের। তবে তৃতীয় এবং শেষ ম্যাচে একাদশ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। শেষ ওয়ানডেতে তাই পরিবর্তনের আভাস দিলেন বোর্ড সভাপতি।

বোর্ড সভাপতি পাপন জানান, একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে। কিন্তু কাউকে মনঃক্ষুণ্ণ করে পরিবর্তন করা হবে না। দলের সবাই ভালো খেলেছে। এখন নির্বাচকদের জন্য খেলোয়াড় বাছাই করাই কঠিন ব্যাপার। তবে, প্রতিপক্ষকে অবহেলা করে কোনো বিপদ টেনে আনতে চায় না বাংলাদেশ। ম্যাচগুলো থেকে সংগৃহীত পয়েন্ট যোগ হবে ওয়ানডে লিগের খাতায়। ২০২৩ বিশ্বকাপ সরাসরি খেলতে হলে, সেখানে যে পাস মার্ক থাকতে হবে বাংলাদেশের।