অবশেষে বাটলারের পক্ষে কথা বললেন নাসের হুসাইন

রোববার রাতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে জস বাটলার-মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বাকবিতণ্ডার ঘটনায় বাটলারের কোন দোষই দেখছেন না সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসের হুসাইন। তার মতে, ম্যাচের ওই মুহূর্তে এমন প্রকাশ স্বাভাবিক।

রোববারের ম্যাচে ২৮ তম ওভারে পেসার তাসকিন আহমেদের করা বলে এলবিডব্লিউর আবেদন করলেও আম্পায়ার সাড়া দেননি। বাধ্য হয়েই থার্ড আম্পায়ারের সাহায্য নিতে হয়। রিভিউতে দেখা গেলো, বাটলার আউট। এমন এক উইকেটে উচ্ছসিত ছিলো পুরো বাংলাদেশ দল।

তার মধ্যেই উদযাপন করতে গিয়ে এমন কিছু বললেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ যা শুনে ক্ষেপে গেলেন জস বাটলার। আর সেটা মেনে নিতে না পেরে, তেড়েফুঁড়ে এগিয়ে যান রিয়াদের দিকে। তবে দুই অনফিল্ড আম্পায়ারের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়।

ইংলিশ অধিনায়কের এমন আচরণের ফলে সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি। ক্রিকেটের সমর্থকরা তার এমন অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ মেনে নিতে পারছে না। তবে এত সমালোচনার মাঝেও নাসের হুসাইন বাটলারের পক্ষেই হাল ধরলেন।

স্কাই স্পোর্টসে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নাসের বলেন, ‘আমি ওখানে একজন অধিনায়ককে দেখেছি, যিনি দলের হয়ে দারুণ ভাবে খেলছিলেন। আমি এমন অধিনায়কই চাই। এমন ম্যাচে এমন হতেই পারে। এবং এমন মুহূর্তে তাকে প্রতিপক্ষ আউট করে দিল।

এয়ার কন্ডিশন ধারাভাষ্যের রুমে বসে আমি শান্ত থাকতে পারি, কিন্তু  ৯০ শতাংশ আদ্রতায়, ৩০ ডিগ্রি গরমে কেউ ব্যাটিং করে দলকে জেতাতে চায় আর তখন যদি কেউ এভাবে ফিরিয়ে দেয়, কেন এমন হবে না!’

সাবেক অধিনায়ক মনে করেন, বাটলার তার সর্বোচ্চ সীমা অতিক্রম করেছেন। তবে তার কিছু করার ছিলো না। নাসের হুসাইন বলেন, ‘সে মনে হয় তার সর্বোচ্চ সীমা অতিক্রম করেছে, কিন্তু তার কি করার ছিল? আমি এমন অধিনায়কই চাই, যিনি দলের জন্য খেলবেন এবং দলের জন্য সব কিছু উজার করে দেবেন।

চারপাশের পরিবেশটাও বুঝতে হবে। এত গরম ছিল। আমি জসকে কখনোই এত রাগতে দেখিনি, সে বরাবর ঠান্ডা মেজাজের খেলোয়াড়। আমার মনে হয় সব কিছু মিলিয়ে সে মাথা গরম করে ফেলেছে।’ — প্রিয়